আইসিইউতে সঙ্গীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী

96

কালো মেঘ যেন নেমে এসেছে সঙ্গীত ভুবনে। সুরস্রষ্টা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের প্রয়াণে শোকসন্তপ্ত সঙ্গীতাঙ্গন ও বিনোদন জগতের মানুষ।

সেই শোক এখনও চলছে। এরই মধ্যে জানা গেল আরেকটি দু:সংবাদ।

তাহলো গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন দেশের আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী সঙ্গীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী।

তাকে মহাখালীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার স্ত্রী ফারজানা মিমি।

তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে আলাউদ্দীন আলী অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হয়।

আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সঙ্গীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলীকে রাত ১২টা ৫ মিনিটে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসে তার পরিবার। তার বুকে সংক্রামণসহ নানারকম জটিলতা দেখা দিয়েছে।

শারীরিক পরীক্ষা শেষে হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখার পরামর্শ দেন।

আলাউদ্দীন আলীকে বর্তমানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে জানিয়ে তার স্ত্রী ফারজানা মিমি এই জীবন্ত কিংবদন্তি সুরকারের সুস্থতায় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

বেশকিছুদিন ধরে ফুসফুসে ক্যান্সারসহ বার্ধক্যজনিত নানা অসুখে ভুগছেন এই ‘আছেন আমার মোক্তার, আছেন আমার ব্যারিস্টার’ গানের সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক।

যদিও মাঝে কিছুটা সুস্থ হয়ে আবার গানে ফিরতে চেয়েছিলেন আলাউদ্দীন আলী।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৮ সালে আলাউদ্দিন আলী যন্ত্রশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্র জগতে আসেন এবং আলতাফ মাহমুদের সহযোগী হিসেবে যোগ দেন।

প্রয়াত আমজাদ খানের ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ ছবির গানের জন্য আলাউদ্দীন আলী ১৯৭৯ সালে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ারে আলাউদ্দীন খান বাংলাদেশের সঙ্গীত ভুবনে উপহার দিয়েছেন অনেক কালজয়ী গান, যা আবহমানকাল ধরেই চলছে মানুষের মুখে মুখে।

তার সুর করা কালজয়ী সেসব গানের মধ্যে উল্লেখযোগ্যগুলো হলো- প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ, একবার যদি কেউ ভালোবাসতো, আছেন আমার মোক্তার আছেন আমার ব্যারিস্টার, যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়, ভালোবাসা যতো বড়ো জীবন তত বড় নয়, দুঃখ ভালোবেসে প্রেমের খেলা খেলতে হয়, হয় যদি বদনাম হোক আরো ইত্যাদি ।

মন্তব্য
Loading...