মাদ্রিদে বাংলাদেশী সবজি চাষ করে সফল আল আমিন

235
gb
বকুল খান,, স্পেন থেকে ।।
 
মাদ্রিদে বাংলাদেশী সবজি পরীক্ষামূলক চাষ করে সফল আল আমিন। মাদ্রিদের শহরতলি টোলেডোর টেম্বলেকে গ্রামে প্রায় দশ হাজার মিটার আবাদি জমি ভাড়া নিয়ে দেশি লাউ লাল শাক .মিষ্টি কুমড়া .কুচুমুকি এবং স্পেনিশ কালাবাচীন ফলিয়ে অভাবনীয় সফলতা পেয়েছেন
তরুণ ব্যবসায়ী .আল আমিন. ব্যক্তি জীবনে ফলমূল ও সবজি ব্যবসায়ী হিসেবে তিনি একজন সফল উদ্যোক্তা।মাদ্রিদ রয়েছে তাঁর ও শাহ আলমের নিজস্ব মালিককানাধীন ৫০টির বেশিও দোকান ।ইউরোপের বৃহত্তম দেশ স্পেন অন্যতম কৃষি প্রধান দেশ.
রয়েছে আবাদি ও অনাবাদি মাইলের পর মাইল কৃষি জমি । মুরসিয়া .মালাগা সিটিতে অনেকে সবজি ক্ষেত করে স্বাবলম্বী হয়েছেন. বাংলাদেশিরা ।.এ ভাবনা থেকে আল আমিন চিন্তা করেন .মাদ্রিদের আশপাশে খালি জমিতে যদি সবজি চাষের ।কেননা মাদ্রিদে অনেকে সময় কাঁচা মরিচ ও ধনিয়া পাতা এবং সিম .শাক এই তীব্র সংকট দেখা দেয় তারপরও অনেকে দেশি সবজি জন্য অপেক্ষা করতে হয়। দেশে ফিরলে অথবা কেউ দেশ থেকে আসলে কিছুটা পাওয়া যায় যৎসামান্য .এ ভাবনা থেকেই . মূলতআবাদি জমি ভাড়া নিয়ে প্রাথমিক ভাবে শখ করে দেশীয় সবজি
. চাষ করে এ মৌসুমে পেয়েছেন দেশীয় সব্জির স্বাদ ।গত ২১ অক্টবর মাদ্রিদ কমিউনিটির সকলকে নিয়ে কৃষি ক্ষেত ঘুরাতে নিয়ে আসেন।
নিজে সবজি ফলনের আনন্দে আল আমিন বলেন. এখানে সার বা পানির তেমন সমস্যা নেই ,এখানের মাটি খুবই উপযোগী সবজি ফলনের। .তাই বাংলাদেশী যে কেউ ইচ্ছে করলে .এ পেশায় দেশিয স্বাদের পাশাপাশি অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হবেন এতা আশা করি।
 
উজ্জ্বল সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচন হতে পারে, পেতে পারেন বিদেশের বুকে দেশের মজাদার খাবার।স্পেনে প্রায় ৪০ হাজার বাংলাদেশির বসবাস
বাংলাদেশী সবজির চাহিদা মিটাতে ইংল্যান্ড থেকে চড়া দামে কিনে বিক্রি করতে হয় স্পেনে । .অনেকে সময় দেরিতে পৌঁছানোর কারণে এ. পণ্যের তাজা স্বাদ মিলে না ।এ দেশেকৃষি ক্ষেত্রেও রয়েছে সরকারি ব্যাপক সুযোগ সুবিধা .
মাদ্রিদ থেকে ৯৪ কিলোমিটার দুরে সবুজের মাঝে প্রিয় জম্ম ভূমি বাংলাদেশ কে খুঁজে ফিরেন এ তরুণ আল আমিন .দেশের সবুজ.. সবজির ছুঁয়াকিছুটা হলেও মাতৃভূমি থেকে সাড়ে ৫ হাজার মাইল দূরে আত্মতৃপ্তি পেয়ে থাকেন.. .
এ ব্যাপারে কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব কামরুজ্জামান সুন্দর .লুৎফুর রহমান .সোহেল ভূঁইয়া .এস এম মাসুদ .খলিলুর রহমান .মো ইকবাল এ উদ্যোগের উচ্ছসিত প্রশংসা করেন। তারা মনে করেন ,ব্যক্তিগত চাহিদা মিটিয়ে বাণিজ্যিক ভাবেও বাজার জাতের সম্ভাবনা রয়েছে।