রাষ্ট্রিয় পৃষ্টপোষকতায় সম্প্রীতি বিনষ্টের ঘটনা বাংলাদেশে আর দেখতে চাইনা: পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়

281
gb

মৌলভীবাজার:
দেশের খ্যাতিমান নাট্য ব্যক্তিত্ব ও সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, রাষ্ট্রিয় পৃষ্টপোষকতায় আমাদের মুক্তিযুদ্ধের দর্শন এবং হাজার বছরের ইতিহাসের উপরে যে আঘাত আসে সে আঘাত কতটা মারাত্নক হতে পারে সেটা আপনারা দেখেছেন ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগেও পরে। তিনি বলেন, আমরা রাষ্ট্রিয় পৃষ্টপেষকতায় সাম্প্রদায়িকতা ও সম্প্রীতি বিনষ্টের কোন ঘটনা বাংলাদেশে আর দেখতে চাইনা।

গাহি সাম্যের গান” এই শ্লোগান নিয়ে সম্প্রীতি বাংলাদেশের উদ্যোগে মৌলভীবাজারে এক সম্প্রীতি সমাবেশে এসব কথা বলেন দেশের গুণি এই নাট্য ব্যক্তিত্ব। শনিবার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে মৌলভীবাজার পৌর মিলনায়তনে এ সম্প্রীতি সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল রেডটাইমস ডটকম ডটবিডির প্রধান সম্পাদক কবি সৌমিত্র দেব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র মোঃ  ফজলুর রহমান।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ড. সাজেদুল আওয়াল,প্রবীন রাজনীতিবিদ অপূর্ব কান্তি ধর , অধ্যাপক নৃপেন্দ্র লাল দাশ,সমাজসেবী এম এ আহাদ , মনু থিয়েটারের  সভাপতি নাট্য ব্যক্তিত্ব আসম সালেহ সোহেল, জীবন চক্র থিয়েটারের সভাপতি আনোয়ার হোসেন দুলাল, নাট্যকার আব্দুল মতিন, অধ্যাপক সৈয়দ মুজিবুর রহমান , লেখক ও সংগঠক এড. মোহাম্মদ আবু তাহের, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক মিন্টু, সম্মিলিত সামাজিক উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি নাট্য ব্যক্তিত্ব খালেদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রণধীর রায় রাহেলা বেগম ,  প্রয়াত সমাজকল্যাণমন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা সানজিদা শারমিন প্রমুখ।

বাচিক  শিল্পী ঝুমুর রায়ের সঞ্চালনায়  অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক বৃটিশ কাউন্সিলার ও যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এম এ রহিম (সিআইপি), সম্মিলিত সামাজিক উন্নয়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আলিম উদ্দিন আলিম ও শহরের বিশিষ্ট ব্যাক্তিরা ।

পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় আরো বলেন, এই দেশটা সম্প্রীতির দেশ, শান্তির ও সৌহার্দ্যের  দেশ, এদেশটা ভ্রাতৃত্বের  দেশ। এই বিশ্বাস, আস্থা ছিল বলেই, ষাটের দশকে আমরা বাঙালী জাতীয়তাবাদের আন্দোলনে একত্রিত হতে পেরেছিলাম। ২৬ এ মার্চের পর আমরা কিন্তু কেউ বসে থাকিনাই , কে মুসলমান,কে হিন্দু , কে বৌদ্ধ কেউ কিন্তু একা আলাদাভাবে ভাবিনাই। আমরা সম্মিলিতভাবে ভেবেছি যে না , আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। আমাদের দেশের যে হাজার বছরের ইতিহাস সে ইতিহাসকে স্থায়ী রূপ দিতে হবে এবং মুক্তিযোদ্ধের মাধ্যমে আমরা সেটি অর্জন করেছি এবং প্রমান করেছি । আমাদের যে লক্ষ, পথচলা, দর্শন, সেটি আমরা নতুনদেও সামনে তুলে ধরতে চাই । আমাদের দেশের হাজার হাজার বছরের ইতিহাস, সম্প্রীতির ইতিহাস, কিন্তু এই সম্প্রীতি বিনষ্টের প্রথম উদাহরন আমরা দেখেছিলাম , যখন আমরা বৃটিশদের শাসনে ছিলাম। তারা রোল সৃষ্টি করে হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির করে সংঘর্ষ বাঁধিয়ে , হানাহানি, মারামারির বিজ রোপণ করে দিয়ে আমাদের হাজার বছরের সম্প্রীতির যে ইতিহাস সে ইতিহাসকে বিঘ্নিত করেছে।  মেয়র ফজলুর রহমান বলেন , আমরা এ দেশে সম্প্রীতি ধরে রাখতে চাই । সভাপতির ভাষণে সৌমিত্র দেব বলেন ,ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত আমাদের যা কিছু অর্জন তার সব কিছুর সঙ্গেই জড়িয়ে আছে সম্প্রীতি ।
সমাবেশে পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, গত ৭ জুলাই জাতীয় জাদুগরের প্রধান মিলনায়তনে সম্প্রীতি বাংলাদেশ নামের এই সংগঠনটি আত্নপ্রকাশ করেছে।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More