জাতির পিতাকে হত্যার পর আদালতে বিচার কার্যক্রম শেষ হলেও এখনো হত্যার মুল পরিকল্পনাকারীদের বিচার হয়নি -যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু পরিষদ

224
gb

লন্ডনঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার মাধ্যমে স্বাধীনতা বিরুধীরা চেয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে চিরদিনের জন্যে মুছে ফেলতে, জাতির পিতাকে হত্যার পর আদালতে বিচার কার্যক্রম শেষ হলেও এখনো হত্যার মুল পরিকল্পনাকারীদের বিচার হয়নি। আর একারণেই এরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিনষ্ট করতে বার বার চেষ্টা করছে। ২১ আগষ্টের গ্রেনেড হামলা সহ প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা চেষ্টা সবই একই সূত্রে গাঁথা। এরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই থামেনি ভিন্ন কৌশলে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করার চেষ্টা করছে। এই অপপ্রচারকারীদের ব্যাপারে আমাদের আরো সজাগ হতে হবে। যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা এঅভিমত ব্যক্ত করেন। বক্তরা বলেন ১৯৭৫ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর খন্দকার মোস্তাক আহমেদ ইনডেমনিটি বিলে স্বাক্ষর করেন।কিন্তু তারপর জিয়াউর রহমান ক্ষমতা নিলেও এই আইন বাতিল করেননি। জাতির জনকের হত্যার সাথে জিয়াউর রহমানের সংশ্লিষ্টতা বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিরাও বিবিসি সহ বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে স্বীকার করেছে। ঠিক তেমনি ২১ আগষ্টের গ্রেনেড হামলায় তারেকের সম্পৃক্ততা জঙ্গিনেতা মুফতি হান্নানের জবানবন্ধিতে উঠে এসেছে। গেল ১৯ আগষ্ট রোববার সন্ধ্যায় ইষ্ট লন্ডনের হারকনেস হাউজ কমিউনিটি সেন্টারে সংগঠনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কয়ছর সৈয়দের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা আলিমুজ্জামানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোক দিবসের আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের ভাইস প্রেসিডেন্ট সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরী, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লন্ডনে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার নাজমুল কাওনাইন, প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলগের সহসভাপতি অধ্যাপক আবুল হাসেম, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নিরবাহী মেয়র জনস বিগস, আলোচনায় অংশ নেন বৃটেনে জন্ম নেয়া তৃতীয় প্রজন্মের ব্রিটিশ বাঙ্গালীদের মধ্য থেকে সাবেক জিএলএ মেম্বার মোরাদ কোরেশী,টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের মেয়রের এডভাইজার কাউন্সিলার আসমা ইসলাম, কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা সোসাইটির ভাইস প্রেসিডেন্ট তানজিনা জামান, জাষ্টিজ ফর জেনসাইডের সেক্রেটারী রুমী হক, ইয়ং স্পীকার আরেফিন হক। সংগঠনের পক্ষ থেকে জয়েন্ট সেক্রেটারী জাহাঙ্গির খান, গোলাম হোসেন আহবাব, সরোয়ার খান। এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে আলোচনায় আরো অংশ নেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীদেগর সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, সাংবাদিক গবেষক আনসার আহমেদ উল্লাহ,যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এডভোকেট শাহ ফারুক, ইউকে ন্যাপের সভাপতি আব্দুল আজিজ, রীনা মোশাররফ, রেহেনা মাহবুব, জামাল খান, আব্দুল বাসির, সাদ আহমদ সাদ প্রমুখ। অনুষ্টানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওত এবং জাতির পিতাসহ ১৫ই আগষ্টের সকল শহীদের আত্মার মাগেফেরাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন যুক্তরাজ্য উলামালীগের সেক্রেটারী মৌলানা কুতুব উদ্দিন।