টোকিও অলিম্পিকের মাসকট নির্বাচন করল শিশুরাই

202
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক //

‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ বলা হয়ে অলিম্পিক গেমসকে। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বহুজাতিক ক্রীড়া মহাযজ্ঞের আসর বসতে এখনও দুই বছর বাকি। ইতিমধ্যেই আত্মপ্রকাশ করল ২০২০ টোকিও অলিম্পিকের মাসকট। একই সঙ্গে টোকিও প্যারা-অলিম্পিকের মাসকটও উন্মোচন করা হলো। অলিম্পিক গেমসের মাসকটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘মিরাইতোয়া’। প্যারা অলিম্পিকের মাসকট ‘সোমেইতি’। জাপানি সংস্কৃতি ও উদ্ভাবনী শক্তির মিশেলে তৈরি করা হয়েছে মাসকট দুটি।

২০২০ সালের ২৪ জুলাই থেকে ৯ অগস্ট পর্যন্ত টোকিওযতে অনুষ্ঠিত হবে পরবর্তী অলিম্পিক গেমস। এর ঠিক পরে ২৫ আগস্ট থেকে ৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত একই ভেন্যুগুলোতে অনুষ্ঠিত হবে প্যারা-অলিম্পিকে। 

 

গত বছর ১ থেকে ১৪ অগস্ট মাসকট নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু করে আয়োজকরা। ৭ ডিসেম্বর কাকেজুকা এলিমেন্টারি স্কুলে প্রাথমিকভাবে তিনটি পৃথক জুটির মডেল প্রকাশ করা হয়। ১১ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা ভোট দেন নিজেদের পছন্দের মাসকট জুটিকে। ২৮ ফেব্রুয়ারি ফলাফল ঘোষণা করা হয়। শেষ পর্যন্ত দুটি মাসকটের নামকরণ করে তা প্রকাশ করে আয়োজক কমিটি। 

অলিম্পিকের মাসকট ‘মিরাইতোয়া’ এর নামকরণ করা হয়েছে জাপানি শব্দ ‘মিরাই’, যার অর্থ ভবিষ্যৎ ও ‘তোয়া’ অর্থাৎ চিরন্তন বা অনন্তকাল এর সমন্বয়ে। প্যারা-অলিম্পিকের মাসকট ‘সোমেইতি’র নামরকণ করা হয়েছে জাপানি শব্দ সোমেইয়োশিনহো ও ইংরাজি শব্দবন্ধ ‘সো-মাইটি’র মিশ্রণে। 

নির্মাণাধীন অলিম্পিক ভিলেজের সামনের নদীতে ওয়াটার প্যারেডে আত্মপ্রকাশ করে মিরাইতোয়া ও সোমেইতি। কারাতে তারকা কিয়ো শিমিজু ও প্যারা-অ্যাথল্যাট হাজিমু আশিদার হাত ধরে ওয়াটার প্যারেড করেছে দুই মাসকট। পরে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে আনুষ্ঠানিকভাবে দুই মাসকটের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় জাপানি নাগরিকদের।