এ যেন অন্য এক নূর মোহাম্মদ

393
gb

মো:নাসির, বিশেষ প্রতিনিধি:
এক সময়ের জাঁদরেল পুলিশ কর্মকর্তা আজ বনে গেছেন পুরোদস্তুর রাজনীতিক। হয়ে উঠছেন গ্রামগঞ্জের সাধারণ মানুষের একজন। চষে বেড়াচ্ছেন মেঠো পথ। হাঁটছেন ধানক্ষেত, পাটক্ষেতের আল ধরে। যাচ্ছেন বাড়িতে বাড়িতে। কথা বলছেন নারী-পুরুষ, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার সঙ্গে।

বলছিলাম এক সময়ের দাপুটে পুলিশ কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদের কথা। তিনি ছিলেন পুলিশের শীর্ষ পদে। মহাপরিদর্শক (আইজিপি)। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা অবস্থায় ছাত্র রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন তিনি। সচিব ও রাষ্ট্রদূত হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন মেধাবী এই পুলিশ কর্মকর্তা।

অবসরের পর এখন তিনি প্রস্তুতি নিচ্ছেন সংসদ নির্বাচনের। তার সময় কাটছে কিশোরগঞ্জ-২ (পাকুন্দিয়া ও কটিয়াদী) আসনের বিভিন্ন এলাকায় আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঙ্গে। সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে মতবিনিময়, নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন তিনি।

ইতোমধ্যে দলের হাইকমান্ড থেকে তাকে নির্বাচনী মাঠ গোছাতে বলা হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি নির্বাচনী এলাকায় গণসংযোগ, মতবিনিময়, কর্মিসভা, পথসভা ও উঠান বৈঠক করছেন।এর অংশ হিসেবে গতকাল কটিয়াদী উপজেলার করগাঁও বাচ্চু মার্কেটে গণসংযোগ করেন। এতে এলাকার সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষ স্বতঃফূর্তভাবে অংশ গ্রহণ করেন।

পথসভায় সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ বলেন, আমি এলাকার উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে আপনাদের নিয়ে সম্পৃক্ত হতে চাই। আমি আপনাদের দোয়া চাই, সমর্থন চাই, সাহায্য চাই। এই এলাকার আলো-বাতাসে আমি বড় হয়েছি। এলাকার মানুষের প্রতি আমার ঋণ আছে। তা পরিশোধ করতে চাই। ভবিষ্যতে যদি কোনো সুযোগ পাই তাহলে আমরা একসঙ্গে কাজ করব এবং সাহসের সঙ্গে কাজ করব। এলাকাবাসীকে আলোর সন্ধান দেব। অন্ধকার থেকে আলোতে নিয়ে যাব এবং ওই যাত্রায় আমরা সবাই একসঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে কাজ করব ইনশাআল্লাহ।

এ সময় স্থানীয়দের মধ্যে সভায় উপস্থিত ছিলেন কটিয়াদী পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর জয়নুল আবেদীন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোর্শেদ উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম, এনায়েতউল্লাহ, শাহরিয়ার আলম পাভেলসহ অনেকেই।

কটিয়াদি ও পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, এই সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ নির্বাচনী এলাকায় গণসংযোগ ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে সময় দেয়ায় তারা নতুন করে প্রাণ ফিরে পেয়েছেন। পুলিশের শীর্ষ পদে দায়িত্ব পালন করা এই নেতা যেভাবে এলাকায় মাটি ও মানুষের সঙ্গে মিশছেন তা সত্যিই অকল্পনীয়। তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হলে নৌকার বিজয় নিশ্চিত হবে বলেও জানান তারা।