মন্টির নির্দেশে বিরল রোগে আক্রান্ত কিশোরের দায়িত্ব নিল সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ

572
gb

বিশেষ প্রতিবেদক,||

ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হসপিটালের চেয়ারম্যান ডা.রুবাইয়াত ইসলামমন্টির নির্দেশে বিরল রোগে আক্রান্ত মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ১৩ বছরের কিশোরআব্বাস শেখের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে তার চিকিৎসা শুরু করেছে ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেলকলেজ অ্যান্ড হসপিটাল লিমিটেড। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে তিনটায় আব্বাস শেখকে নিয়ে তার বাবারাজ্জাক শেখ মালিবাগে অবস্থিত ডা. সিরাজুল ইসলাম হাসপাতালে পৌঁছলে জরুরী বিভাগেআব্বাসকে ভর্তি করা হয়।জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. মেহেদী হাসান রাজু আব্বাসের শরীর প্রাথমিকভাবে পরীক্ষানিরীক্ষা করে সার্জারি বিভাগে ভর্তির জন্য নির্দেশনা দেন। আব্বাস শেখকে ১০০৭ নং কেবিনে ডা.সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জেনারেল সার্জন সহকারী রেজিস্ট্রার সহযোগী অধ্যাপকডা.এ.কে.এম . রুহুল আমীনের অধীনে ভর্তি করা হয়।ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসকরা জানিয়েছেনআব্বাসের শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে। পরীক্ষার নিরীক্ষা পরবর্তি তার কী রোগ হয়েছে তা জানা যাবে।এর আগে গত সোমবার ও মঙ্গলবার বিরল রোগে আক্রান্ত আব্বাসকে নিয়ে বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমেরপ্রকাশিত সংবাদ বিদেশে অবস্থান রত প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান তরুন সমাজসেবক বিশিষ্টরাজনীতিবিদ ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির নজরে আসে। এরপর তিনি চিফ ইক্সিকিউটিভ অফিসার(সিইও) অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজকে এই কিশোরের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদানের নির্দেশদেন ।হাসপাতালের সিইও অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজের নির্দেশ পেয়ে হাসপাতালের পক্ষ থেকে আব্বাস শেখেরবাবা রাজ্জাক শেখের সাথে যোগাযোগ করা হয়। বিস্তাারিত বিষয় জানার পর রাজ্জাক শেখ আব্বাসকেডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের দেওয়া চিকিৎসা সেবার সুযোগ গ্রহণ করারসিদ্ধান্ত জানান। বৃহস্পতিবার আড়াইটায় রাজ্জাক শেখ তার ছেলে আব্বাসকে নিয়ে ডা. সিরাজুলইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালে আসেন।উল্লেখ্য মানবতাবাদী ডা. মন্টি তার পিতা মরহুম সিরাজুল ইসলামের পদাঙ্ক অনুসরন করে বছরের পর বছরমানবতার সেবায় নিজকে নিয়োজিত রেখেছেন। যেখানে অসহায় মানুষের আর্তনাদ সেখানেই মন্টিরউপস্থিতি। গত সপ্তাহেও ডা. মন্টির বদৌলতে মানসিক সমস্যাগ্রস্থ নোয়াখালীর গৃহবধূ রিমা দীর্ঘএক মাস চিকিৎসা নিয়ে পূর্ন সুস্থ হয়ে ফিরে গেছেন স্বামীর ঘরে।প্রসঙ্গত, মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ১৩ বছরের কিশোর আব্বাস শেখ। তার ডান পা ফুলেবিশালাকৃতির হয়েছে। এতে করে সে চলাফেরা করতে পারছে না। এমনকি তার স্কুলে যাওয়াও বন্ধ। তার পাদিয়ে বের হচ্ছে এক ধরনের রস। একারণে বাইরের কেউ তার সাথে মেশে না। এছাড়াও তার সারা শরীর জুড়েউঠেছে আচিল। সব মিলে করুণ যন্ত্রণায় দিন কাটাছিল এ কিশোরের। ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেলকলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আশা করেন খুব দ্রæতই যথাযত চিকিৎসায় আব্বাস স্বাভাবিক হয়ে ওঠবে।