ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জে ট্রাকের সাথে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ! চালকসহ বাস পুড়ে চাই

353
gb

উত্তম কুমার পাল হিমেল, নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ)প্রতিনিধি ||

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের মডেল বাজার (পুলিশের অস্থায়ী চেকপোস্টের সামনে) নামকস্থানে ট্রাকের সাথে ধাক্কা লেগে এসআর পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসে আগুন ধরে চালকসহ বাসটি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এসময় আহত হন আরো ১৫ জন যাত্রী। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাযায়, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিলেট এসআর পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা-মেট্রো-ব-১১-৬৮২) নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের মডেল বাজার (পুলিশের অস্থায়ী চেকপোস্টের সামনে) নামকস্থানে দন্ডয়মান একটি ট্রাকের পেছনে ধাক্কা লেগে বাসটি ধুমরে মুছরে আগুন ধরে যায়। মুহুর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পরে। বাসটিতে থাকা যাত্রীরা হুরোহুরি করে প্রাণে রক্ষা পেলেও বাসচালক (অজ্ঞাত) গাড়ির স্টেয়ারিং চাপা দিয়ে ধরে রাখায় বাহির হতে পারেন নি। প্রত্যক্ষদর্শীরা অনেকেই জানিয়েছেন, চোখের সামনেই এভাবে একটি তাজা প্রাণ আগুনে পুড়ে চাই হয়ে গেলে কিছুই করতে পারিনী। যখন আগুন নিয়ন্ত্রণে ছিল তখন বাসচালক প্রাণে বাচার জন্য হাত তুলে সাহায্য চেয়েছিল। কিন্তু বাসের সামনের স্টেয়ারিং এমনভাবে চালককে চাপা দিয়ে আটকিয়ে রেখেছিল কিছুতেই উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে পুলিশ মডেল বাজার অস্থায়ী চেকপোস্টা বসিয়ে নিয়মিত চাদা আদায় করে আসছে। দূর্ঘটনার সময় একইভাবে পুুলিশ ট্রাকটিকে আটকানোতে এতবড় দূর্ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ এসব অভিযোগ অস্বীকার করে।
এ ব্যপারে শেরপুর হাইওয়ে থানার পুলিশের (ওসি) বিমল চন্দ্র ভৌমিক এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাসের যাত্রীদের অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করি। তবে আগুনে পুড়ে ছাই হওয়া বাস চালক এই গাড়ির সুপারভাইজার বলে নিশ্চিত করেছেন। নিহত বাসচালকের গোপালগঞ্জ গ্রামে বিল­াল হোসেন বলে তিনি জানিয়েছেন।