নতুন আইজিপি হিসেবে নিয়োগ পেলেন সততার দিকপাল জাবেদ পাটোয়ারী

312
gb

মো:নাসির||

২৩ জানুয়ারী মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাবেদ পাটুয়ারীকেই আইজিপি [[পুলিশ প্রধান[] হিসেবে নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছেন বলে বিশ্বস্ত সূত্র নিশ্চিত জানা গেছে।এখন চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য ফাইল যাবে মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে। এরপর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় হতে প্রজ্ঞাপণ জারি করা হবে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি তিনি আইজিপি হিসেবে দায়িত্ব নিতে পারেন বলে সুএে জানা যায় উল্লেখ্য, বর্তমান আইজিপি এ কে এম শহীদুল হকের চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৩১ জানুয়ারি। তাকে সম্প্রতি সিনিয়র সচিব করা হয়েছে।।
জাবেদ পাটোয়ারী বিসিএস ৮৪ ব্যাচের। ওই ব্যাচে প্রথম হয়েছিলেন তিনি। ১৯৮৬ সালে তিনি সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন।জাবেদ পাটোয়ারী পুলিশ বাহিনীতে একজন মেধাবী ও পেশাদার কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত। প্রচারবিমুখ ও মৃদুভাষী এ কর্মকর্তা সুনামের সঙ্গে দীর্ঘদিন চাকরি করে আসছেন। এসবির প্রধান হিসেবে বর্তমান পদে একটানা ৯ বছর কর্মরত আছেন। এর আগে ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৯ সালের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত তিনি এসএস সিটির দায়িত্ব পালন করেন।
চাঁদপুর সদরে তার গ্রামের বাড়ি। বঙ্গবন্ধুর জেলজীবনের ওপর লেখা গ্রন্থ ‘কারাগারে রোজনামচার’র বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৪৮ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত এসবি’র রেকর্ড রুমে বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে ৬৬ হাজার ক্লাসিফাইড গোয়েন্দা তথ্য সংরক্ষিত আছে। জাবেদ পাটোয়ারি এসবির শীর্ষ পদে আসার পর গুরুত্বপূর্ণ এই দলিলাদি বিশেষভাবে সংরক্ষণে বিশেষ উদ্যোগ নেন। প্রধানমন্ত্রীর গুডবুকে পুলিশের উচ্চপদস্থ থাকা কর্মকর্তাদের মধ্যে তিনি অন্যতম।
সূত্র জানিয়ছে, বর্তমান আইজিপি একেএম শহীদুল হক ইতিমধ্যে বিদায়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আইজি পদে তিনি যোগ দেন ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর। সূত্রগুলো বলছে, পুলিশের এই সর্বোচ্চ পদে নিয়োগ পেতে কেউ কেউ কিছুদিন থেকে জোর চেষ্টা তদবির করে আসছেন। তবে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সারসংক্ষেপ পাঠানোর পর নতুন আইজিপির নামপরিচয় অনেকটা স্পষ্ট হয়েছে। আইজি পদে এই পরিবর্তনকে কেন্দ্র করে পুলিশের উচ্চ পর্যায়ে আরও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদে রদবদল হতে পারে।২০২০ সালের এপ্রিল পর্যন্ত চাকরির মেয়াদ আছে চৌকস পুলিশ জাবেদ পাটুওয়ারীর। তার জন্ম চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নে। বাবুরহাট হাই স্কুল থেকে কৃতিত্বের এসএসসি এবং চাঁদপুর কলেজ হতে এইচএসসি পাস করেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজ বিজ্ঞান অনুষদে ভর্তি হন। অাগাম অভিনন্দন।