প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সমালোচনা করায় দু’জনকে পুলিশে সোপর্দ

274
gb

জিবিনিউজ24 ডেস্ক:মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলনের নামে একটি দলের কতিপয় ব্যক্তি নোয়াখালী জেলা শহরের বিআরডিবি মিলনায়তনে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে বিরূপ সমালোচনা করার খবর পেয়ে বিক্ষুব্ধ জনতা তাদের ঘেরাও করে। খবর পেয়ে সুধারাম থানা পুলিশ এসে দু’জনকে আটক করলেও অন্যরা পালিয়ে যায়।

আটককৃতদের মধ্যে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি স্বরুপ হাসান শাহীন অপরজন কেন্দ্রীয় নেতা আলাউদ্দিন আল হাসান।

জানা যায় মহান শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উদ্‌যাপন উপলক্ষে জেলা শহরের বিআরডিবি মিলনায়তনের একটি কক্ষ বিকালের জন্য ভাড়া করে মুক্ত রাজনৈতিক দল নোয়াখালী জেলা শাখা। তাদের অনুষ্ঠানের আলোচ্য বিষয় ছিল- সিরাজুল আলম খাঁনের ১৪ দফা এবং প্রাসঙ্গিক অদলীয় সংগঠন ও রাজনীতি’। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখছিলেন কেন্দ্রীয় সভাপতি স্বরুপ হাসান শাহিন, তিনি প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে বিরূপ আলোচনা করা বিষয়টি অনুষ্ঠানে বাহিরে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ জনতাসহ স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীরা তাদের ঘেরাও করে। খবর পেয়ে সুধারাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে অনুষ্ঠানের আয়োজকসহ অন্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও কেন্দ্রীয় সভাপতি স্বরুপ হাসান শাহীন ও কেন্দ্রীয় অপর নেতা আলাউদ্দিন আল হাসানকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয় জনতা। পরে সুধারাম থানা পুলিশ তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে আয়োজক মুক্ত রাজনৈতিক দলের নোয়াখালী শাখার সভাপতি মোহাম্মদ হামিদুল হক জানান এটি একটি অরাজনৈতিক দল, তারা শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করছিলেন সিরাজুল আলম খাঁনের ১৪ দফা ও প্রাসঙ্গিক অদলীয় সংগঠন নিয়ে আলোচনা করছিলেন তবে সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বলেননি। অনুষ্ঠানে আলোচকরা সকলেই জাসদ রবের অনুসারী। এখানে মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের অতিথি করা হয়েছে।

শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে তারা কিছু বলেননি। তবে এটি করতে তারা পুলিশ বা থানা থেকে অনুমতি নেননি।

সুধারাম থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান এরা অনুমতি না নিয়ে এ ধরনের আলোচনা করা অবৈধ। খবর পেয়ে পুলিশ সেখান থেকে তারা দু’জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।