ঘুষের টাকাসহ কাস্টমস কর্মকর্তা হাতেনাতে ধরা

জিবি নিউজ ২৪
টাঙ্গাইলে ঘুষ নেয়ার সময় হাতেনাতে কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট অফিসের এক কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)
মঙ্গলবার দুপুরে দুদকের টাঙ্গাইলের উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই কর্মকর্তা হলেন, টাঙ্গাইলের বিভাগীয় কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট অফিসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মারুফ। এ সময় তার কাছ থেকে ঘুষের ১৫ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।
এ ব্যাপারে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় টাঙ্গাইলের উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গোবিন্দ কিশোর পাল নামের এক ব্যক্তি সরকারি নির্ধারিত নতুন ভ্যাট (১৩ ডিজিটের) রেজিস্ট্রেশন করার জন্য কাস্টমস অফিসে আসেন। কাস্টমস অফিসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মারুফ তার কাছে টাকা দাবি করেন। পরে ঘুষের দাবির বিষয়টি নিয়ে আমাদের কাছে তিনি লিখিত অভিযোগ দেন।
অভিযোগের ভিত্তিতে একটি টিম গঠন করা হয়। এই টিমের সদস্যরা মঙ্গলবার ওঁৎ পেতে থাকেন। পরে ঘুষ নেয়ার সময় হাতেনাতে নগদ ১৫ হাজার টাকাসহ মারুফকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ব্যাপারে দুদকের আইনে মামলা দায়ের করা হবে। যদি এর সাথে কেউ আরো জড়িত থাকে তাহলে তাকেও আইনের আওতায় আনা হবে।
এ ব্যাপারে অভিযোগকারী গোবিন্দ কিশোর পাল বলেন, আমার একটি কুটির শিল্প আছে। আমি ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে ভ্যাট নিবন্ধন করেছি। ২০১৬ সালের আমার এই প্রতিষ্ঠান শুরু হয়। এরপর থেকেই আমি প্রতিনিয়তই সরকারকে ভ্যাট দিয়ে আসছি। আমি বিগত কয়েক দিন আগে ভ্যাট দিতে গেলে আমাকে জানানো হয় সরকার ১৩ ডিজিটের নতুন ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন চালু হয়েছে। আমাকে নতুন ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন করতে বললে আমি সেটা করতে চাইলে প্রথমে আমার কাছে ২০ হাজার টাকা ঘুষি দাবি করে আব্দুল্লাহ আল মারুফ। পরে এক পর্যায়ে ১৫ হাজার টাকার বিনিময়ে ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন করে দিতে রাজি হয়। বিষয়টি আমি দুদক অফিসে গিয়ে বিস্তারিত বলি। তারা একটি টিম গঠন করে তাকে গ্রেপ্তার করে।
Attachments area

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন