সরকারকে দায়ী করলেন নেতৃবৃন্দ চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাংসদ হারুনের কারাদন্ড ও কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে বিএনপি’র বিক্ষোভ-সমাবেশ

28
gb

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের সাংসদ ও বিএনপি কেন্দ্রিয় যুগ্ম-মহাসচিব হারুনুর রশীদকে পাঁচ বছর কারাদন্ড প্রদান ও কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনগুলো।
সোমবার(২১’অক্টোবর) দুপুরে ঢাকার একটি আদালত পূর্বে সাংসদ থাকাকালীন শুল্কমুক্ত সুবিধায় আনা একটি গাড়ি বেআইনিভাবে বিক্রির দায়ে একটি মামলায় সাংসদ হারুনকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে প্রেরণ করেন।
এর প্রতিবাদে বিকেলে শহরের পাঠানপাড়াস্থ অফিসের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সদর থানা,পৌর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বিকেল সাড়ে ৩টার দিক থেকে নেতাকর্মীরা বিএনপি অফিসে জড়ো হবার পর সমাবেশ শুরু হয়। এতে বক্তব্য দেন সদর থানা বিএনপি সভাপতি ও নবনির্বাচিত সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তসিকুল ইসলাম তসি,সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম মতি,পৌর সাধারণ সম্পাদক আ্যাড.ময়েজউদ্দিন,সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বারেক,সামিরুল হক পলাশ প্রমুখ।
এসময় বক্তরা সাংসদ হারুনকে দেয়া দন্ডের প্রতিবাদ করেন। তারা মামলাটি মিথ্যা বলে দাবি করে এর পেছনে সরকারের ইন্ধন রয়েছে বলেও দাবি করেন। বিএনপি নেতারা সাংসদ হারুনের অবিলম্বে মুক্তি দাবী করেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় কর্মসূচী পরে জানানো হবে বলেও জানান তারা। নেতৃবৃন্দ বলেন,তারা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ও এই মামলা আইনগতভাবে মেকাবিলা করা হবে।
নেতৃবৃন্দ সমাবশে ও সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করে বলেন, পুলিশী নিশেধের কারণে তারা রাজপথে মিছিল নিয়ে না নেমে অফিসের সামনেই সমাবেশ কর্মসূচী পালন করছেন।
এই অভিযোগের ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকভাল হোছাইনের নিকট জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, বিএনপির কোন শান্তিপূর্ণ কর্মসূচীর ব্যাপারে পুলিশী কোন বাধা নেই। এ ব্যাপারে তাদের কোন রকম বাধা দেয়া হয়নি।
এদিকে দুপুর থেকেই বিএনপি অফিসের আশপাশে মাঝে মাঝেই বিশেষ করে টহলে গোয়েন্দা ও থানা পুলিশের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেলেও বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে তাদের মুখোমুখি অবস্থানে যেতে দেখা যায়নি।
এদিকে সাংসদ হারুনের রায়ের খবর দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ এসে পৌঁছুলে প্রতিবাদে শহরে তাৎক্ষনিক ঝটিকা মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে ছাত্রদল। ##

gb

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More