আবরার হত্যায় আরও তিনজন গ্রেপ্তার

215
gb

জিবি নিউজ ২৪

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে বুয়েটের আরও তিন ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

এরা হলেন- মনিরুজ্জামান মনির (২১), মো. আকাশ হোসেন (২১) ও শামসুল আরেফিন রাফাত (২১)।  এই তিনজনকে গ্রেপ্তারের খবর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মাসুদুর রহমান।

তিনি বলেন, এই তিনজন আবরারের বাবার করা মামলার এজাহারনামীয় আসামি।

গ্রেপ্তার অভিযানে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একজন অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জানান, ‘আজ (মঙ্গলবার) বিকালে ডেমরা থেকে মনিরকে এবং জিগাতলা থেকে রাফাতকে গ্রেপ্তার করা হয়। আকাশকে গ্রেপ্তার করা হয় সন্ধ্যায় গাজীপুর বাইপাস সড়ক থেকে। ’                       মনির বুয়েটের ওয়াটার রিসোর্সেস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ষোড়শ ব্যাচের তৃতীয় বর্ষে, আকাশ একই ব্যাচের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষে এবং রাফাত মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের সপ্তদশ ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

আবরার ছিলেন বুয়েটের তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। গত রবিবার রাতে শিবির সন্দেহে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের পিটুনিতে তিনি নিহত হন বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার গ্রেপ্তার মনির বুয়েট ছাত্রলীগের সাহিত্য সম্পাদক ছিলেন। আবরার হত্যাকাণ্ডের পর যে ১১ জনকে ছাত্রলীগ বহিষ্কার করেছে, তার মধ্যে মনিরও রয়েছেন।

আবরারের বাবা কুষ্টিয়াবাসী অবসরপ্রাপ্ত ব্র্যাককর্মী বরকতুল্লাহ মোট ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় মামলা করেন।

এনিয়ে এজাহারভুক্ত ১৯ আসামির মধ্যে ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ; এর মধ্যে আগে গ্রেপ্তার ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে পেয়েছে পুলিশ।

গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আরাফাত লেলিন বলেন, ‘বাকি আসামিদের গ্রেপ্তার করতে আমাদের অভিযান চলছে। ’

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন