সৌদি আরবে বাংলাদেশের ঔষধ ও খাদ্যপণ্যের চাহিদা রয়েছে- রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ

144
gb

প্রতিনিধি ||

সৌদি খাদ্য ও ঔষধ কর্তৃপক্ষ (Saudi Food and Drug Authority-SFDA) কর্তৃক তিন দিনব্যাপী ঔষধ, চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ও খাদ্য পণ্যের মেলা রিয়াদে শুরু হয়েছে। ৩০ সেপ্টেম্বর রিয়াদের আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে Riyadh international conventions and exhibitions center মেলার উদ্বোধন করেন সৌদি খাদ্য ও ঔষধ কর্তৃপক্ষ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. হিসাম আল-জাদে Dr. Hisham Al-Jadhey। মেলায় বাইশ টি দেশের আশি টি প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় এক শত বিশ টি প্রতিষ্ঠানসহ মোট দুই শত টির বেশী প্রতিষ্ঠান তিন হাজার পাঁচ শত ব্রান্ডের ঔষধ, চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ও খাদ্য পণ্য নিয়ে অংশগ্রহণ করছে । কতৃপক্ষ প্রত্যাশা করছেন বিশ হাজারের বেশী দর্শনার্থী গবেষক, চিকিৎসক, ব্যবসায়ি ও বিনিয়োগকারি এই মেলা ও সম্মেলনে অংশগ্রহন করবেন ।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ উদ্বোধনী দিনে মেলা পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি বলেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশের ঔষধ ও খাদ্য পণ্যের চাহিদা রয়েছে। সৌদি আরবের সাথে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন মেলায় অংশগ্রহনের মাধ্যমে সৌদি আরবের বাজারে বাংলাদেশের ঔষধ ও খাদ্য পন্যের পরিচিতি  বৃদ্ধি পাবে। রাষ্ট্রদূত আশা প্রকাশ করেন আগামী দিনে দেশের ঔষধ ও খাদ্যপণ্য রফতানি বৃদ্ধির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন সম্ভব হবে। গোলাম মসীহ বলেন সৌদি আরবে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের ও বিপুল চাহিদা রয়েছে, যা দিন দিন আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি সৌদি আরবে রফতানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে দূতাবাসের পক্ষ থেকে ব্যবসায়ীদের সব ধরণের সাহায্য সহযোগিতা করা হচ্ছে বলে জানান।
মেলায় প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে সেমিনারের ও আয়োজন করা হয়েছে। মেলা চলবে আগামী ২ অক্টোবর পর্যন্ত। বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো এবং রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাসের সহায়তায় বাংলাদেশের খ্যাতনামা ঔষধ কোম্পানি এরিস্টোফার্মা লিমিটেড ARISTOPHARMA LTD ও রেডিয়েন্ট নিউট্রাসিউটিক্যালস  RADIANT Neutraceuticals  ও খাদ্যপণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মাসুদ ফিশ প্রসেসিং এন্ড আইস কমপ্লেক্স লিমিটেড MASUD FISH PROCESSING & ICE COMPLEX LTD. ও প্যাসিফিক সি ফুডস লিমিটেড Pacific Sea Foods Ltd. মেলায় অংশগ্রহণ করছে।
দূতাবাসের মিনিস্টার এস এম আনিসুল হক, ইকোনমিক মিনিস্টার মোঃ আবুল হাসান ও প্রথম সচিব (প্রেস) মোঃ ফখরুল ইসলাম মেলা পরিদর্শন করেন।

মেলায় অংশগ্রহনকারি এরিস্টোফার্মার আর্ন্তজাতিক ব্যবসা বিভাগের জেষ্ঠ ব্যবস্হাপক মোহাম্মদ পারভেজ রানা বলেন, এরিস্টোফার্মা বাংলাদেশে একটি অন্যতম শীর্ষ ঔষধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান । বিশ্বের ৩২ টি দেশে তাদের ঔষধ রপ্তানি হয়ে আসছে । সৌদি আরবে কিভাবে ঔষধ রপ্তানি করা যায় সেই উদ্দেশ্য নিয়ে এই মেলায় তাদের অংশগ্রহন । তিনি জানান, এরই মধ্যে সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন । শীঘ্রই সৌদির বাজারে এরিস্টোফার্মার ঔষধ রপ্তানিতে আশাবাদী ।

রেডিয়েন্ট নিউট্রাসিউটিক্যালস এর আর্ন্তজাতিক ব্যবসা বিভাগের ব্যবস্হাপক মোহাম্মদ মইনুল হাকিম জানান, সৌদি আরব, কুয়েত সহ বেশ কয়েকটি দেশের প্রতিনিধি দল তাদের প্যাভিলিয়নে আসছেন । রেডিয়েন্টের প্রোডাক্টে তারা আগ্রহ প্রকাশ করছেন । তিনি আশা প্রকাশ করছেন সৌদি আরব সহ মধ্যপ্রাচ্যের বাজারে খুব শীঘ্রই তাদের আর্ন্তজাতিক মানের ঔষধ রপ্তানি করতে পারবেন ।

প্যাসিফিক সি ফুডস এর ব্যবস্হাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দোদুল কুমার দত্ত বলেন, বিশ্বের পচিশ টি দেশে তাদের পণ্য রপ্তানি করে আসছেন । তার মধ্যে সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে তাদের পণ্যের বড় বাজার রয়েছে । তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, তার প্রতিষ্ঠানের সকল পণ্য বাংলাদেশে উৎপাদিত । অথচ বার্মা, ইন্ডিয়া সহ কয়েকটি দেশ মেইড ইন বাংলাদেশ মোড়ক লাগিয়ে তাদের পণ্য বাজারজাত করে আসছে । এই গুরুত্বপূর্ন বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি ।

মাসুদ ফিশ প্রসেসিং এন্ড আইস কমপ্লেক্স লিমিটেড এর ব্যবস্হাপনা পরিচালক আশরাফ হোসেন মাসুদ বলেন, ইউরোপ আমেরিকা অষ্ট্রেলিয়া সহ মধ্যপ্রাচ্যের বাজারে তাদের পণ্য অত্যন্ত সুনামের সাথে রপ্তানি করে আসছেন । তাদের উৎপাদিত বেকারি পণ্যের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে ।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন