পাইকগাছায় চিংড়ি ঘেরে বিষ প্রয়োগ; লাখ লাখ টাকার মাছ মরে সাবাড়

65
gb

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছায় বিরোধপূর্ণ চিংড়ি ঘেরে বিষ প্রয়োগ করায় কয়েক লাখ টাকার মাছ মরে সাবাড় হয়ে গেছে। মঙ্গলবার রাতে কে বা কারা উপজেলার নূরপুর-আমিরপুর মৌজার জাহাঙ্গীর বকুল গংদের ঘেরে বিষ প্রয়োগ করলে ঘেরের প্রায় সব মাছ মারা যায়।
প্রাপ্ত অভিযোগে জানাগেছে, উপজেলার গড়ইখালী ও লস্কর ইউপি’র সীমান্তবর্তী একটি চিংড়ি ঘের নিয়ে বকুল চন্দ্র মন্ডল ও জাহাঙ্গীর গংদের সাথে সঞ্জিব মাসুম গংদের দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। চলতি মৌসুমে সঞ্জিব গংদের দখলে থাকা চিংড়ি ঘেরের মধ্য থেকে প্রাপ্ত অংশ বের করে নিয়ে পৃথক ঘের করেন বকুল গংরা। পৃথক করা ঘেরটি রবিউল ও খায়রুল ইসলাম পরিচালনা করে আসছে। এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে চরম বিরোধ সৃষ্টি হয়। সঞ্জিব গংরা আশপাশ এলাকার চিংড়ি ঘেরের পানি উত্তোলনের পথ বন্ধ করে দিলে এলাকাবাসী তাদের বিরুদ্ধে মানববন্ধনও করে। এদিকে মঙ্গলবার রাতে বকুল গংদের ২৫ বিঘা চিংড়ি ঘেরে কে বা কারা বিষ প্রয়োগ করে বলে অভিযোগ করেন ঘের পরিচালনাকারী রবিউল ইসলাম। তিনি জানান, চিংড়ি ঘেরটি পৃথক করে নিলেও আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে। বুধবার ভোরে ঘের কর্মচারীরা চারো ঝাড়তে গিয়ে দেখে ঘেরের চিংড়ি ও সাদা মাছ সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মরে সাবাড় হয়ে গেছে। এতে প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে রবিউল ইসলাম জানান। তিনি বলেন, মরা মাছের পাশাপাশি শেওলার উপর পড়ে থাকা বিষের ট্যাবলেট পাওয়া গেছে। বিষয়টি থানার ওসি’কে অবহিত করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি বলেন। এর আগেও পাশের ৯ বিঘার ঘেরে কে বা কারা বিষ প্রয়োগ করে বলে বকুল গংরা অভিযোগ করেন।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More