বেনাপোলে ভারত সীমান্তবর্তী ইছামতি নদী থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

86

ইয়ানূর রহমান :

ভারত সীমান্তবর্তী বেনাপোলের দৌলতপুর সীমান্তের চরের মাঠ এলাকার ইছামতি নদী থেকে সোমবার সকাল ৯ টায় এক বাংলাদেশী যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধারকৃত যুবকের নাম ইশারত (২৮)। সে বেনাপোল পৌরসভার ভবেরবেড় গ্রামের আয়ুব আলীর ছেলে। ইশারতের পরিবার সুত্র জানায়, সে বাড়ি থেকে রাগারাগি করে তিন দিন আগে নিখোঁজ হয়। সে একজন মৃগী রোগি। এরপর অনেক খোজাখুজির পর তার লাশ ভারত সীমান্তবর্তী বেনাপোলের দৌলতপুর সীমান্তের চরের মাঠে ইছামতি নদীতে পাওয়া যায়। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। এলাকার একটি সুত্র দাবি করে বলেছে ইশারত একজন চোরাচালানি। সে ও তার ভাই ইমারত এবং তাদের কয়েকজন সহযোগি গত তিন দিন আগে ভারত যায় ভারতীয় পন্য আনতে। এরপর ভারত থেকে ফেরার সময় ইছামতি নদী পার হওয়ার পার ইশারতকে আর পাওয়া যায়নি। তবে ইশারতের মৃগী রোগ ছিল। এরপর ইশারতকে বিগত তিন দিন খোজাখুজির পর ইছামতি নদীতে ভেসে উঠা লাশ পাওয়া যায়। লাশ উদ্ধারের সময় তার নাকে ও গালে রক্ত ছিল। এবং গাল মুখ ফুলা অবস্থায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। দেীলতপুর বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার মুজিবর বলেন গত দুই দিন যাবৎ ইশারতের পরিবার আমাদের কাছে অভিযোগ করে ইশারতকে পাওয়া যাচ্ছে না। সেই থেকে তার পরিবার এর লোকজন সীমান্তের ইছামতি নদীতে লাশ খোজাখুজির এক পর্যায়ে আজ সকালে তার লাশটি ইছামতি নদীতে ভাসতে দেখে। এরপর বিজিবিকে খবর দিলে বিজিবি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। বেনাপোল পোর্ট থানার এ এসআই নাছির উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধারের সময় তার গালে মুখে রক্ত দেখতে পাওয়া গেছে। তবে পোস্ট মর্টেম ছাড়া কিছু বলা যাবে না। সে কিভাবে মারা গেছে। লাশ পোস্ট মর্টেম এর জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।#