জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৯-২০ অর্থবছরের ১৩২ কোটি ৭০ লাখ টাকার মূল বাজেট পাস হয়েছে

মো:নাসির, বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪//
জবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অর্থ কমিটির ৬০তম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট ১১৭ কোটি ৩২ লাখ টাকা এবং ২০১৯-২০ অর্থবছরের ১৩২ কোটি ৭০ লাখ টাকার মূল বাজেট পাস হয়। যার মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের বরাদ্দ ১০৩ কোটি ১৫ লাখ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব আয় ১৮ কোটি ও ঘাটতি ১১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা, ঘাটতি অর্থ বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের নিকট সম্পূরক বাজেট প্রস্তাব চাওয়া হবে। এরমধ্যে গবেষণা ও উদ্ভাবনী খাতে ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা (যা গত অর্থবছরের মূল বাজেটে বরাদ্দ ছিল ১ কোটি ৩০ লাখ), শিক্ষা উপকরণ ও ল্যাবরেটরি যন্ত্রপাতি ক্রয় খাতে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা (যা গত অর্থবছরে হতে ২০ লাখ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে) বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। সমাবর্তন খাতে ৩.৫ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে, যা সমাবর্তনে অংশগ্রহণকারীদের আবেদন ফির অতিরিক্ত। এছাড়াও গাড়ি রক্ষণাবেক্ষণ খাতে ১ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে (যা গত অর্থবছরে ৪৫ লাখ টাকা ছিল)। বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম খাতে ৩ কোটি টাকা (যা গত অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল ১০ লাখ টাকা) বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এছাড়া অগ্নি নির্বাপন খাতে এবারই প্রথম পাঁচ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। তথ্য প্রযুক্তি সরঞ্জামাদি খাতে ৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে (যা গত অর্থবছরে ৫ লাখ টাকা ছিল)। বইপত্র, সাময়িকী ক্রয় খাতে (লাইব্রেরি) ৫৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে (যা গত অর্থবছরে ছিল ২৭ লাখ)। প্রকাশনা খাতে বাজেট ২০ লাখ টাকা করা হয়েছে (যা গত অর্থ বছরে ১৫ লাখ টাকা ছিল)। বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যবস্থাপনা ব্যয় ২ কোটি ৪১ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে (যা গত অর্থবছরে ১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা ছিল)। এছাড়াও পরিবহন খাতে দুটি মিনিবাস (এসি) ও শিক্ষার্থীদের জন্য একটি বড় বাস ক্রয়ের জন্য মোট ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা বাজেট বরাদ্দ রাখা হয়েছে, যা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব অর্থয়ানে ক্রয় প্রক্রিয়াধীন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন