মাদ্রিদে খুলনা বিভাগীয় কল্যান সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

72
gb

স্পেনে নবগঠিত বৃহত্তর খুলনা বিভাগীয় কল্যান সমিতির উদ্যোগে স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের পিরামিড পার্কে রোববার (৯ জুন) উৎসবমুখর ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শতাধিক প্রবাসীর অংশগ্রহণে পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদ পুনর্মিলনী আয়োজনে বাংলাদেশের প্রবাসীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে সংগঠনের সদস্য কামরুল হাসান ও মো. হাসানের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ মাসুদুর রহমান নাসিম।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সভাপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর, বৃহত্তর ঢাকা অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সভাপতি এম এইচ সোহেল ভূঁইয়া।

প্রধান অতিথি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক, সবার সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং নবগঠিত বৃহত্তর খুলনা বিভাগীয় কল্যান সমিতির কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি সবাইকে এক ও অভিন্ন থেকে স্ব স্ব অবস্থান থেকে দেশ ও নিজেদের উন্নয়নে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। এমন একটি মিলনমেলা আয়োজন করায় তিনি সংগঠনের নেতাদের ধন্যবাদ জানান। তিনি আশা করেন যে, এমন ঈদ পুনর্মিলন আমাদের সকল প্রবাসীদের ভ্রাতৃত্ববোধ বৃদ্ধি করে, আমরা যেন প্রবাসে থেকেও দেশের জন্য ভালো কিছু করতে পারি, দেশকে আরও ভালবাসতে পারি। সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ মাসুদুর রহমান নাসিম, তার বক্তব্যে এই আয়োজনে সকলের সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। এছাড়াও অনুষ্ঠানে পুরুষদের জন্য ছিল হাঁড়িভাঙা খেলা, নারীদের বালিশ খেলা, বাচ্চাদের বেলুন খেলা ও দৌড় প্রতিযোগিতা। মন মাতানো এই ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সৈয়দ মাসুদুর রহমান নাসিম, রবিউল ইসলাম রফিক ও কামরুল ইসলাম।

ঈদ পুনর্মিলনী এই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বৃহত্তর খুলনা বিভাগীয় কল্যান সমিতির রফিকুল ইসলাম, হাফেজ জহির আহমদ, তরিকুল ইসলাম, মো. টিটন বিশ্বাস, মো. টিটু, বাপ্পি রহমান, মো. রফিক, জুলহাস উদ্দিন, মো. সেলিম, মো. হাসান, মো. শান্টু, মো. শামীম, হুমায়ূন কবির, কামরুল ফরাজী, মো. আনোয়ার, হাদী মুন্সি, মনিরুজ্জামান, শুভ ও রতন প্রমুখ।

আরো উপস্থিত ছিলেন মাদ্রিদ প্রবাসী ব্যবসায়ী এবং রাজনৈতিক নেতারা, ছাত্র-ছাত্রী, সাংবাদিকসহ বাংলাদেশি প্রবাসী বিভিন্ন পেশার লোকজন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্যক্তিদের মধ্যাহ্নভোজনের জন্য দেশি সুস্বাদু খাবার পরিবেশন করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানের সকল পুরুষ, মহিলাসহ শিশুদেরকে বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার এবং ঈদ উপহারও প্রদান করা হয়।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More