উখিয়া-টেকনাফ অধিবাসীদের আনা হচ্ছে ভিজিএফ’র আওতায়

531
gb

অজিত কুমার দাশ হিমু, কক্সবাজার  ||
কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোর এক কিলোমিটার দুরত্বের ভেতর যেসব স্থানীয় মানুষ রয়েছে তাদেরকে ভিজিএফ এর আওতায় আনা হচ্ছে। রবিবার (১৫ অক্টোবর) সকালে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি’র সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সাংসদ আবদুর রহমান বদি এ কথা বলেন।
উখিয়া-টেকনাফে রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা এনজিও গুলোতে চাকরির ক্ষেত্রে ৮০ ভাগ স্থানীয়দের অগ্রাধিকার দেয়া না হলে কোন এনজিওকে এলাকায় ঢুকতে না দেয়ার হুুঁশিয়ারী দেন এই সাংসদ।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাংসদ আবদুর রহমান বদি আরো বলেন, উখিয়া-টেকনাফ আমার এলাকা। এখানকার মানুষ যাতে অধিকার বি ত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখা আমারই নৈতিক দায়িত্ব।
তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে স্থানীয়রা নানাভাবে ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে। তাই রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এককিলোমিটার দুরত্বের ভেতরে অবস্থানকারী স্থানীয় লোকজনকে ভিজিএফ এর আওতায় আনতে হবে।
তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য পরিকল্পিত ভাবে স্যানিটেশন ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। তা না হলে শুষ্ক মৌসুমে পরিস্থিতি ভয়াবহতায় রূপ নিতে পারে। মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়তে পারে পানিবাহিত সহ নানা রোগব্যাধী। তাই এখন থেকে এ বিষয়ে গঠনমূলক পদক্ষেপ নিতে হবে।
এমপি বদি বলেন, উদ্ভট দুর্গন্ধ রোধে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় নিয়মিত মেডিসিন দেয়া প্রয়োজন।
উখিয়া-টেকনাফের শিক্ষিত বেকার যুবক-যুবতীদের জেলা আওয়ামীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফার বরাবর জীবন বৃত্তান্ত দেয়ার আহবান জানান তিনি ।
কক্সবাজার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আনোয়ারুল নাসের এর স ালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রকৌশল) লেঃ কর্ণেল আনোয়ারুল ইসলাম ও কক্সবাজার পৌসভার মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুবুর রহমান চৌধুরী। এসময় সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।