পুলিশের নজর এড়াতে ৩৮টি সিম ব্যবহার করতেন হানিপ্রীত

298
gb

পুলিশি জেরায় হানিপ্রীতের কাছ থেকে পাওয়া যাচ্ছে একের পর এক তথ্য। পুলিশি জেরার মুখে হানিপ্রীত জানিয়েছে, ৩৮ দিন ধরে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে বেড়িয়েছিল সে। কী করে পুলিশের নজর এড়িয়ে ছিলেন, এবার ধীরে ধীরে প্রকাশ পাচ্ছে সেই তথ্য।

সূত্রের খবর, এই ৩৮ দিন ধরে ১৭ বার মোবাইল ফোনের সিমকার্ড বদলে ফেলেছে ধর্ষণের দায়ে জেলখাটা স্বঘোষিত ধর্মগুরু রাম রহিমের ছায়াসঙ্গিনী হানিপ্রীত। নিয়েছে ছদ্মনাম। ব্যবহার করেছে ছদ্মবেশ। শুধু তাই নয়, যখনই ভুয়া সিমকার্ড ব্যবহার করেছে, তখনই সেই ফোনে ইচ্ছা করে দিয়েছে ভুল লোকেশন। তাই তার নাগাল পেতে গিয়ে বিভ্রান্ত হয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, যে ৩৮টি সিম কার্ড ব্যবহার করেছিল হানিপ্রীত, তার মধ্যে তিনটি সিমকার্ড ছিল আন্তর্জাতিক। ১৬টি ছিল আন্তদেশীয়। প্রতিটি সিম ব্যবহার করা হতো আলাদা আলাদা দুটি মোবাইলে।

এমনকি ফোনে কথা বলা নয়, যোগাযোগ করার জন্য হানিপ্রীত ব্যবহার করত হোয়াটসঅ্যাপ। এর মধ্যে বেশির ভাগ কথাই হয়েছে হানিপ্রীতের অন্যতম সহযোগী সুখদীপ কউরের সাথে।

সূত্র আরো জানায়, কমপক্ষে ৩-৪ টি আলাদা নম্বর ব্যবহার করে সুখদীপের সাথে কথা বলত হানিপ্রীত। তবে ঠিক কি কথা হত তাদের মধ্যে তা জানা যায়নি।

এদিকে সেই হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনের বেশিরভাগই এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। কারণ তার কাছ থেকে ৩৮টি নম্বরের সবকটি উদ্ধার করা যায়নি।

এদিকে পুলিশের দাবি, জেরায় সম্পূর্ণ সহযোগিতা করছে না হানিপ্রীত। কখনও মিথ্যা বলছে। কখনো সত্য গোপন করে পুলিশকে বিভ্রান্ত করছে। তাই তার নারকো টেস্ট করানোর কথা ভাবা হচ্ছে।