সুনামগঞ্জে স্কুলছাত্রী হত্যায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড

158
gb

বহুল আলোচিত সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী হুমায়রা আক্তার মুন্নী (১৯) হত্যা মামলায় ইয়াহিয়া সরদারকে (২২) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে আসামি ইয়াহিয়া সরদার উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ইয়াহিয়া সরদার জেলার দিরাই উপজেলার সাকিতপুর গ্রামের জামাল সরদারের ছেলে।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনাকারী (পিপি) ড. খায়রুল কবীর রোমেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় আগাম ঘোষণা দিয়ে ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাসায় ঢুকে দিরাই বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী হুমায়রা আক্তার মুন্নীকে ছুরিকাঘাতে খুন করেন ইয়াহিয়া সরদার।

দিরাই পৌর শহরের আনোয়ারপুরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। এ ঘটনার দুদিন পর ১৮ ডিসেম্বর নিহতের মা বাদী হয়ে দিরাই থানায় ইয়াহিয়া সরদার ও তার অপর এক সহযোগীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

এ ঘটনায় পুলিশ প্রথমে ইয়াহিয়ার সহযোগী দিরাই পৌর শহরের আনোয়ারপুর নয়াহাটির বাসিন্দা আবুল কালাম চৌধুরীর ছেলে তানভীর আহমদ চৌধুরীকে গ্রেফতার করে।

এর পর হত্যাকাণ্ডের পাঁচ দিন পর সিলেটের জালালাবাদ থানার মাসুকপুর গ্রামসংলগ্ন দশশাল থেকে প্রধান আসামি ইয়াহিয়া সরদারকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার আলোচিত এ মামলার রায়ে সন্তোস প্রকাশ করে নিহত মুন্নীর মা রাহেলা বেগম ও তার স্বজনরা দ্রুত রায় কার্যকর করার দাবি জানান।

আসামিপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট হুমায়ন মঞ্জুর চৌধুরী।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন