রাম রহিমকে ‘শিক্ষা’ দিতেই প্রেমিক খুঁজেছিল হানিপ্রীত?

2,583
gb

দুই নৌকায় পা! ভণ্ড বাবার এমন কাণ্ড দেখে নিজেই আরেক নৌকায় পা ফেলেছিল হানিপ্রীত। অভিযোগ, রাখি সাওয়ান্তের সঙ্গে বাবাজির ঘনিষ্ঠতা বাড়ছে দেখে রাম রহিমকে ‘শিক্ষা’ দিতে প্রেমিকও খুঁজে ফেলেছিল সে। এমনটাই দাবি করলেন ময়ূর ভার্মা নামে এক অভিনেতা।

প্রায় প্রতিদিনই রাম রহিমের সম্পর্ক নিয়ে নানা মুখরোচক কাহিনী সামনে আসছে। এবার প্রকাশ্যে আসছে হানিপ্রীতের বিভিন্ন কাণ্ড কারখানা। এবার সেই তালিকায় নতুন সংযোজন। মুখ খুললেন অভিনেতা ময়ূর ভার্মা। পাঞ্জাবে জন্ম হলেও ছোট পর্দায় অভিনয়ের সুবাদে মুম্বইয়েই থাকেন তিনি। সুদর্শন এই অভিনেতার প্রেমে নাকি পড়ে গিয়েছিলেন হানিপ্রীত।

একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে অভিনেতা ময়ূর বলেন, “হানিপ্রীত আমাকে জীবনসঙ্গী করার জন্য টাকা, বাংলো ও প্রচুর সম্পত্তি দেওয়ার কথা বলেছিলেন। সিনেমায় নায়ক করারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

কিন্তু, বাবাজি জানলে কী হবে? এই প্রশ্নের উত্তরে হানিপ্রীত নাকি ময়ূরকে সবকিছু সামলে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু, অনামী এক অভিনেতার সঙ্গে কেন ঘনিষ্ঠ হতে চেয়েছিলেন হানিপ্রীত? ময়ূরের জবাব, “প্রথমে কিছু বুঝতে পারিনি। পরে জেনেছিলাম, রাখি সাওয়ান্তের সঙ্গে বাবাজির ওঠা-বসা পছন্দ হয়নি হানিপ্রীতের। তাই একদিকে রাখি সাওয়ান্ত, আরেকদিকে বাবাজিকে ‘শিক্ষা’ দিতে চেয়েছিলেন। সে জন্য প্রেমের জন্য উঠেপড়ে লেগেছিলেন। ” তাঁর দাবি, দুই নৌকায় পা দিয়ে চলতেই নাকি ভালবাসে হানিপ্রীত।

তবে শেষ পর্যন্ত বেশ কয়েক মাস ধরে ফোনালাপ চলার পর হানিপ্রীতের ডাকে সাড়া দেননি বলেই দাবি ময়ূরের। যদিও এই অভিযোগের প্রতিক্রিয়া না পাওয়া গেলেও হানিপ্রীতের ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, এই অভিযোগ ঠিক নয়। প্রচারে আসতে অভিনেতা এমন অভিযোগ করছেন।

হরিয়ানার পাঁচকুলার সেক্টর ২৩-এর থানার লকআপে রাত কাটছে হানিপ্রীত ইনসানের। শোয়ার জন্য একটি শতরঞ্চি দেওয়া হয়েছে তাকে।