ঢাবিতে বহিরাগত গাড়িচালক আটক

যৌন হয়রানির অভিযোগ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে এক বহিরাগত মাইক্রোবাস চালককে আটক করা হয়েছে। শনিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলের সামনে থেকে শিক্ষার্থীরা তাকে গাড়িসহ পুলিশে দেয়। বর্তমানে সে শাহবাগ থানায় রয়েছে।

আটক চালক হল আবদুল করিম। তিনি ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডে চুক্তিভিত্তিক গাড়ি চালান বলে জানা গেছে। যৌন নিপীড়ক এ চালকের গ্রামের বাড়ি বরিশালের মুলাদী উপজেলার হোসনাবাদে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী নাট্যকলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মো. তানভীর হাসান সৈকত যুগান্তরকে বলেন, ওই ড্রাইভার গাড়ির মধ্যে নগ্ন অবস্থায় আপত্তিকর কাজে লিপ্ত ছিল।

সে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে গাড়ির মধ্য থেকে ডাকতে থাকে। তখন ওই ছাত্রীরা পা থেকে জুতা খুলে ড্রাইভারকে দেখায়। বিষয়টি দেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী জড়ো হয়ে যায়।

তখন ওই ড্রাইভার দ্রুত গাড়ি চালিয়ে সটকে পড়ার চেষ্টা করে। এ সময় আমরা তার গতিরোধ করি এবং প্রক্টোরিয়াল টিমের মাধ্যমে পুলিশে তুলে দেই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, বর্তমানে ওই চালক ও গাড়িটি শাহবাগ থানায় আছে। পুলিশ তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে।

নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সাহেব আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন