সৌদি আরবকে ২-০ গোলে হারাল কাতার

২০১৯ সালের এএফসি এশিয়ান কাপের গ্রুপ-ই পর্বে সৌদি আরবকে ২-০ গোলে হারিয়েছে কাতার।

দুই দেশের মধ্যে ২০১৭ সালের জুনে বড় ধরনের কূটনৈতিক সংকট শুরু হওয়ার পর এই প্রথমবারের মতো তারা খেলার মাঠে মুখোমুখি হয়েছে।

আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে বৃহস্পতিবার উপসাগরীয় দুই বৈরী দেশ মাঠে নামে। ‘ই’ গ্রুপের বিজয়ী নির্ধারণের জন্য এ ম্যাচটিকে ব্লকেড ডারবি নামে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

তবে এখানেও বৈরী পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছে কাতারকে। দেশটির জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের সময়েও সৌদি সমর্থকরা দুয়ো ধ্বনী দিয়েছে বলে দেখা গেছে।

গ্রুপ ম্যাচের শুরুতে এর আগে লেবাননকে হারিয়েছে কাতার। পরে উত্তর কোরিয়াকেও ছয় গোলে পরাজিত করে।

মঙ্গলবার শেষ ষোলোতে ইরাকের মুখোমুখি হবে ২০২২ সালের বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ কাতার। আর সোমবার জাপানের সঙ্গে লড়বে গ্রুপ-ইতে রানার্সআপ হওয়া সৌদি আরব।

উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে সংকটের কারণে এই টুর্নামেন্টের ঔজ্জ্বল্য নষ্ট হয়ে গেছে বলা যায়।

কাতারের বিরুদ্ধে বিমান, স্থল ও সমুদ্রপথ অবরোধের কারণে দেশটির ফুটবলভক্তরা নিজ দলকে সমর্থন জানাতে আবুধাবিতে যেতে পারেননি।

এমনকি খেলার সংবাদ সংগ্রহ করতে কাতারের গণমাধ্যমকেও আবুধাবিতে ঢুকতে দেয়নি আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ।

সন্ত্রাসবাদের সমর্থনের অভিযোগ তুলে ২০১৭ সালের জুনে কাতারের সঙ্গে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর। যদিও কাতার সব অভিযোগ অস্বীকার করছে।

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি বলেন, তিনি প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনায় প্রস্তুত। কিন্তু দেশের সার্বভৌমত্ব হারাতে মোটেও রাজি নই।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন