আজ সংসদে ভোট হতে যাচ্ছে:ব্রেক্সিট নামে সেই প্রশ্নে খসড়া চুক্তিটির

185

অনেক তর্ক-বিতর্ক আর আলোচনা-সমালোচনার পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়া, যা ব্রেক্সিট নামে পরিচিত, সেই প্রশ্নে খসড়া চুক্তিটি নিয়ে আজ সংসদে ভোট হতে যাচ্ছে।

বিরোধী লেবার পার্টি তো বটেই, নিজ দল টোরির অনেক সংসদ সদস্যের বিরোধিতার মুখে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের তৈরি করা ব্রেক্সিট চুক্তির উপর মঙ্গলবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে ভোটগ্রহণ হবে।

এ নিয়ে গোটা ব্রিটেনে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। কী হবে ব্রিটেনের অবস্থান? বিলটি নিয়ে প্রচণ্ড চাপের মুখে থাকা ব্রিটেন প্রধানমন্ত্রী শেষ মুহূর্তেও ব্রেক্সিটের পক্ষে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। খসড়া এই চুক্তিটি পাশ না হলে পার্লামেন্টে অচলাবস্থা তৈরি হবে, যা থেকে জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলেও এক বক্তব্যে উল্লেখ করেছেন।

গতকাল সোমবার বিকেলে শেষবারের মতো থেরেসা মে তাঁর এমপিদের ব্রেক্সিটের পক্ষে ভোট দিতে আহ্বান জানান, যেখানে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে যাওয়া এবং ইইউর সঙ্গে ভবিষ্যত সম্পর্কের বিষয়ে আশ্বস্ত করা হয়েছে।

এর আগে হাউজ অব কমন্সে থেরেসা মে বলেছিলেন, ‘এটি নিখুঁত নয়, তবে যখন ইতিহাসের বইগুলো লেখা হবে, মানুষ এই হাউজের সিদ্ধান্তটি সম্পর্কে জানবে এবং জিজ্ঞেস করবে, আমরা কি দেশের স্বার্থে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ছাড়ার জন্য ভোট দিয়েছি? আমরা কি আমাদের অর্থনীতি ও নিরাপত্তা রক্ষা করেছি? নাকি আমরা আমাদের দেশের মানুষকে অবহেলা করেছি?’

‘ব্রিটেন এক্সিট’ নামটিকে সংক্ষেপে ব্রেক্সিট বলা হয়। যার অর্থ ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাবার একটি প্রক্রিয়া।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৮টি দেশের মানুষ একে অন্যের দেশে যেতে পারেন। একসঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য করতে পারে। তাছাড়া এই ইউনিয়নভূক্ত দেশের মানুষেরা এক দেশ থেকে অন্য দেশে গিয়ে বসবাসও করতে পারেন।

মন্তব্য
Loading...