বোলিংয়ে মাশরাফি ব্যাটিংয়ে রুশো

65

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) সিলেট পর্ব শুরু হচ্ছে আজ। ঢাকায় প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষ উইকেট শিকারি বোলার রংপুর রাইডার্স অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। পাঁচ ম্যাচে ১০ উইকেট তার। ঢাকায় প্রথম পর্ব শেষে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শীর্ষে রয়েছেন রাইলি রুশো। সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকায় সেরা পাঁচে আছেন চিটাগং ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম এবং খুলনা টাইটানসের ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকী।

রংপুরের পাঁচটি ম্যাচেই খেলেছেন রংপুরের দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান রুশো। পাঁচ ইনিংসে ১১৫ গড় এবং ১৩১.৪২ স্ট্রাইক রেটে ২৩০ রান করেছেন তিনি। সর্বোচ্চ ৮৩ রানের ইনিংস খেলেছেন। আসরে সর্বোচ্চ সংখ্যক চারও (২০টি) হাঁকিয়েছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকান। দ্বিতীয় স্থানে আছেন সিলেট সিক্সার্সের ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান। তিন ম্যাচ খেলে ৮২.৫০ গড় এবং ১৫৭.১৪ স্ট্রাইক রেটে ১৬৫ রান করেছেন তিনি। সবচেয়ে বেশি ১৪টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান।

তিন নম্বরে আছেন ঢাকা ডায়নামাইটসের ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই। চার ইনিংসে ৩৫ গড় এবং ১৬৬.৬৬ স্ট্রাইক রেটে এই আফগান করেছেন ১৪০ রান। দুটি করে ফিফটি রুশো, পুরান এবং জাজাইয়ের। জাজাইয়ের চেয়ে এক রান কম করে পরের স্থানে আছেন চিটাগং ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিক। চার ইনিংসে ৩৪.৭৫ গড় এবং ১৩৩.৬৫ স্ট্রাইক রেটে তার রান ১৩৯। ফিফটি একটি। ইনিংস সর্বোচ্চ ৭৫। সেরা পাঁচের শেষ স্থানে আছেন খুলনা টাইটানস ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকী। মুশফিকের সমান ইনিংস খেলে ১৩৫.৪৪ স্ট্রাইক রেটে ১০৭ রান করেছেন জাতীয় দলের এই সাবেক ওপেনার।

বোলিংয়ে দেশি বোলাররাই রাজত্ব করছেন। সেরা দশে বিদেশিদের মধ্যে রয়েছেন শুধু চিটাগং ভাইকিংসের প্রোটিয়া অলরাউন্ডার রবি ফ্রাইলিঙ্ক। চার ম্যাচে তার উইকেট নয়টি। নয় উইকেট রয়েছে রংপুরের শফিউল ইসলামেরও। শীর্ষে থাকা মাশরাফির ইকোনমি রেটও দুর্দান্ত (৫.৭০)। তার সেরা বোলিং ১১ রানে চার উইকেট। সাতটি করে উইকেট রয়েছে তিনজনের।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, সিলেট সিক্সার্সের তাসকিন আহমেদ এবং ঢাকা ডায়নামাইটসের সাকিব আল হাসানের। তাসকিন খেলেছেন তিনটি ম্যাচ। শীর্ষ দশে থাকা বোলারদের মধ্যে তাসকিনের ইকোনমি রেটই (৮.০৮) সবচেয়ে বেশি। ছয়টি করে উইকেট পেয়েছেন ঢাকার রুবেল হোসেন, রংপুরের ফরহাদ রেজা ও চিটাগংয়ের খালেদ আহমেদ।

মন্তব্য
Loading...