ভোট দিতে জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ড বাধ্যতামূলক নয়

139
gb
# সৈয়দ নাজমুল হাসান, ঢাকা।।

আজ (শুক্রবার) সন্ধ্যায় নির্বাচন ভবনে সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘সাধারণত ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ড বাধ্যতামূলক নয়। ইভিএমের ভোট কেন্দ্রে স্মার্টকার্ড, জাতীয় পরিচয়পত্র বা ভোটার নম্বর সাথে নিয়ে গেলে ভোটদান সহজ হবে। তবে ভোট প্রদানে জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ড বাধ্যতামূলক নয়।’

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ভোট কেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার ছাড়া কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। তবে ভোটাররা চাইলে সঙ্গে মোবাইল ফোন বহন করতে পারবেন। ভোটকেন্দ্রের ভেতরে বন্ধ রাখতে হবে। ভোটাররা কোনোভাবেই বুথ ও কেন্দ্রে ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। কেন্দ্রের বাইরে এসে আবার তা ব্যবহার করতে পারবেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, নির্বাচন নিয়ে কোন শঙ্কা নাই। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হবে। ভোটের দিন ইসির অনুমোদন ছাড়া কোনো যান্ত্রিক যানবাহন চলবে না। তবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সরকারি গাড়ি, সেবা সংস্থা যেমন ফায়ার সার্ভিস, অ্যাম্বুলেন্স, সংবাদপত্র বহনকারী গাড়ি এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ভোট দেয়ার জন্য পোস্টাল ব্যালটের আবেদন করেছেন কিনা তা জানা নেই। তবে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার বলতে পারবেন।

ফলাফল ঘোষণার প্রক্রিয়ার প্রশ্নের জবাবে বলেন ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান বলেন, প্রতিটি ভোটকেন্দ্রেই ফলাফল ঘোষণা হবে। প্রিজাইডিং অফিসার ভোটগ্রহণ শেষে সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতিতে কেন্দ্রেই ভোট গণনা করবেন। এ সময় প্রার্থীর এজেন্টরা উপস্থিত থাকতে পারবেন। ভোট গণনা শেষে প্রিজাইডিং অফিসার লিখিত ফলাফল সংশ্লিষ্টদের সরবরাহ করবেন। পরে এ ফলাফল তিনি সহকারি রিটার্নিং অফিসারের কাছে পৌঁছে দেবেন। তিনি তা রিটার্নিং অফিসারের কাছে পাঠাবেন। রিটার্নিং অফিসাররা তা ইসিতে পাঠাবেন। ইসির ফোয়ারা প্রাঙ্গণে স্থাপিত মঞ্চ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ভোটের ফল ঘোষণা করা হবে। এ চত্ত্বরে ১০টি মনিটরের মাধ্যমে ফলাফল প্রদর্শন করা হবে।

gb

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More