নবীগঞ্জে টিউবওয়েল বসাতে গিয়ে গ্যাসের সন্ধান উৎসুক জনতার ভিড় !

153
gb

 উত্তম কুমার পাল হিমেল,নবীগঞ্জ(হবিগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

নবীগঞ্জে বিশুদ্ধ পানি পান করার জন্য হত দরিদ্র পরিবারের লোকজন একটি টিউবওয়েল বসাতে গিয়ে গ্যাসের সন্ধান পাওয়ার ঘটনায় এলাকাজুড়ে অজানা আতংক বিরাজ করছে। শুক্রবার বিকালে সরেজমিনে গিয়ে টিউবওয়েলের মালিক ও স্থানীয়দের কাছ থেকে এমন তথ্য পাওয়া যায়। গত বৃহস্পতিবার নবীগঞ্জ উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চলের ১নং পশ্চিম বড় ভাকৈর ইউনিয়নের চরগাঁও গ্রামের মিন্টু মিয়ার বাড়িতে টিউবওয়েল স্থাপনের জন্য শ্রমিকরা পাইপ বসানোর কাজ শুরু করেন। কাজ চলাকালে সে সময় পাইপ প্রায় ১শ ৪৫ ফুট গভীরে যাওয়ার পর হঠাৎ করেই বিকট শব্দ হয়ে সম্পূর্ণ পাইপ আকাশ পথে উপর দিক দিয়ে উঠতে থাকে। এরপর সেখান থেকে আগুনের লেলিহান শিখা বের হতে থাকে। পরে সেখানে প্রচুর পরিমানে গরুর গোবর ও মাটি দিয়ে গর্তটি বন্ধ করে দেয়া হয়। এসময় পাশ্ববর্তী একটি পুকুরের পানিতে ভলকানো শুরু হয়। বাড়ির চারিদিকে মাটি ফেটে পানির ভলকানো দেখা দেয় এবং বিকট ভাবে শব্দ হতে থাকে। এঘটনার খবর চতুরদিকে ছড়িয়ে পড়লে এলাকা জুড়ে আতংক সৃষ্টি হয়। এব্যাপারে পশ্চিম বড় ভাকৈর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি ও স্থানীয় বাসিন্দা চরিত্র মোহন দেবনাথ বলেন, খবর পেয়ে আমি এসে দেখতে পাই গ্যাস উপর দিক দিয়ে প্রকটভাবে শব্দ করে উঠতেছিল। পরে গোবর দিয়ে গর্তের মুখ বন্ধ করে রাখা হয়। তিনি আরো বলেন, প্রায় ৭/৮ বছর পূর্বে পাশের মুকিত মিয়ার বাড়িতে ঠিক তেমনি ভাবে একটি টিউবওয়েল বসাতে গিয়ে একই অবস্থার সৃষ্টি হয়। এ ছাড়া আমাদের গ্রামের কালা চাঁন মিয়ার গাছ তলায় নাট মন্দিরে প্রায় ৬বছর পুর্বে একটি টিউবওয়েল বসাতে গিয়ে একই অবস্থার সৃষ্টি হয়। এ কারনে আমাদের গ্রামের অনেক স্থানে মানুষজন টিউবওয়েল বসাতে পারতেছেন না। এজন্য অনেক কষ্ট করে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার দূরে একটি মসজিদ থেকে খাবার পানি আনতে হয়। এব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইকবাল হোসেন এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমি বিষয়টির খবর পেয়ে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি ।