সিলেট চেম্বারের সাথে নবনিযুক্ত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

139
gb

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে সিলেটের নবনিযুক্ত জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম’র সাথে চেম্বার নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা রবিবার সন্ধ্যা ৬টায় চেম্বার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ এর সভাপতিত্বে সভায় নবনিযুক্ত জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমান সরকার দেশে ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে সরকার প্রাইভেট সেক্টরকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন। তিনি আরো বলেন, দেশের অর্থনীতিতে ব্যবসায়ীদের অবদান সব থেকে বেশী। তাই ব্যবসায়ীদের প্রতি বিশেষ দৃষ্টি রাখা প্রশাসনের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

তিনি বলেন, পর্যটন খাতের বিকাশে বর্তমান সরকার জেলা ব্রান্ডিং কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। প্রকৃতিকন্যা সিলেটকে ব্রান্ডিং করতে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সহযোগিতা প্রয়োজন বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি সিলেট চেম্বারের বিভিন্ন কার্যক্রমের ভূঁয়সী প্রশংসা করে সিলেটকে যানজটমুক্ত পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সিলেট চেম্বারের সাথে যৌথভাবে কাজ করে যাওয়ার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন। তিনি সিলেট চেম্বারের বিভিন্ন দাবী দাওয়া আদায়ে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ মতবিনিময় সভায় মিলিত হওয়ার জন্য নবনিযুক্ত জেলা প্রশাসককে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণ ও দাবী-দাওয়া আদায়ে কাজ করার পাশাপাশি সিলেটে বিনিয়োগ বৃদ্ধি, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার এবং শিল্প ও পর্যটন খাতের উন্নয়নে কাজ করে থাকে। তিনি বলেন, পর্যটন খাতে সিলেট অঞ্চল অত্যন্ত সম্ভবনাময়। সিলেটের ট্যুরিস্ট স্পটগুলোর অবকাঠামোগত উন্নয়ন, যোগাযোগ ব্যবস্থা ও সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা একান্ত প্রয়োজন।

তিনি বলেন, ইতোপূর্বে সিলেট চেম্বার প্রশাসনের সহযোগিতায় ‘কিপ সিলেট ক্লিন’ কর্মসূচী বাস্তবায়ন করেছে এবং জিন্দাবাজার পয়েন্ট থেকে চৌহাট্টা পয়েন্ট পর্যন্ত রাস্তাকে ‘মডেল রোড’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। তিনি এই কর্মসূচীর কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য জেলা প্রশাসক-কে অনুরোধ জানান। এছাড়াও তিনি সিলেট-ঢাকা-সিলেট রুটে সান্ধ্যকালীন ফ্লাইট প্রতিদিন চালু রাখা, রেলসেবার মান উন্নয়ন ও বিমানবন্দরে ওয়াচ আওয়ার স্থাপনসহ বিভিন্ন দাবী আদায়ে জেলা প্রশাসকের সহযোগিতা কামনা করেন।

তিনি বলেন, এপর্যন্ত সিলেট চেম্বারের মাধ্যমে যেসব কার্যক্রম বাস্তবায়িত হয়েছে তা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী, বাণিজ্যমন্ত্রী, মাননীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর মূখ্যসচিব, স্থানীয় প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতায়।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) স্বন্দীপ কুমার সিংহ, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহ সভাপতি মো. এমদাদ হোসেন, সিলেট চেম্বারের পরিচালক জিয়াউল হক, পিন্টু চক্রবর্তী, নুরুল ইসলাম, মো. ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), মুশফিক জায়গীরদার, আমিরুজ্জামান চৌধুরী, এহতেশামুল হক চৌধুরী, মুকির হোসেন চৌধুরী, আব্দুর রহমান, চন্দন সাহা, মো. আব্দুর রহমান জামিল, হুমায়ুন আহমেদ, মো. আতিক হোসেন, মুজিবুর রহমান মিন্টু, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এনডিসি মো. হেলাল চৌধুরী প্রমুখ