বাংলাদেশ মনে করে পারমানবিক অস্ত্রের সম্পূর্ণ নির্মূলই হতে পারে এর ব্যবহার বন্ধের একমাত্র পূর্ণ নিশ্চয়তা” – রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন

2,679
gb

হাকিকুল ইসলাম খোকন || নিউইয়র্ক, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ||

বাংলাদেশ মনে করে পারমানবিক অস্ত্রের সম্পূর্ণ নির্মূলই হতে পারে এর ব্যবহার বন্ধের একমাত্র পূর্ণ নিশ্চয়তা। সুদূরপ্রসারী এই লক্ষ্য অর্জনের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ এবছর ৭ জুলাই গৃহীত পারমানবিক অস্ত্র-নিরোধ চুক্তি সমর্থন করেছে এবং সদস্যরাষ্ট্রসমূহের মধ্যে প্রথম গ্রæপে থেকে গত সপ্তাহে এ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে”- গত ২৬ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সদরদপ্তরে “পারমানবিক অস্ত্রের সম্পূর্ণ নির্মূলের জন্য পালিত আন্তর্জাতিক দিবস” এর স্মরণ ও প্রচারের লক্ষ্যে গৃহীত জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের উচ্চ পর্যায়ের প্লেনারি সভায় একথা বলেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন।খবর বাপসনিঊজ। এ প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত মাসুদ ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে পরমানু নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের একটি সভায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রদত্ত বক্তৃতার উদ্বৃতি দেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, “বাংলাদেশ বিশ্বাস করে যে পরমানু অস্ত্র চূড়ান্ত নিরাপত্তা ও শান্তি নিশ্চিত করতে পারে না। অন্যদিকে, এই নিশ্চয়তা প্রদান সম্ভব যদি শিক্ষা, আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ সংরক্ষণের মাধ্যমে জনগণকে ক্ষমতায়িত করা যায় এবং শান্তি অর্জনে মানুষের সামর্থ্যকে ব্যবহার করা যায়। কোন সন্দেহ নেই শান্তিকে সুরক্ষিত রাখার এসকল কাজে আমাদেরকে বিনিয়োগ করতে হবে কিন্তু আমরা নিশ্চিত বলতে পারি, এটি পারমানবিক অস্ত্র তৈরি এবং তা দিয়ে যুদ্ধ করার জন্য যে মূল্য দিতে হয় তা তার চেয়ে কম”। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের প্রস্তাব ৭০/৩০ অনুযায়ী পারমানবিক নিরস্ত্রীকরণের উপর সামগ্রিক আলোচনার জন্য ২০১৮ সালের মধ্যেই জাতিসংঘের উচ্চপর্যায়ের একটি সম্মেলন আহŸানের বিষয়টিকে বাংলাদেশ সমর্থন করে মর্মে তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন।