বিয়নীবাজারে দু’শ বছরের মাছ বাজার নিয় পৌরসভার প্রতারনা!

2,363
gb

মুকিত মুহাম্মদ, বিয়ানীবাজারঃ বিয়ানীবাজার পৌসভা থেকে দায়িত্বশীলরা মাছ বাজার উচ্ছেদ করার প্রতিবাদ জানিয়েছেন মৎস্যজীবী নেতারা। আজ শনিবার দুপুরে আব্দুল্লাহপুরে মাছবাজার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কোন মাছ ব্যবসায়ী বাড়ি বাড়ি গিয় মাছ বিক্রি করলে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করার ঘোষণা দেয়া হয়। কুড়ারবাজার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু তাহেরের সভাপতিত্বে মাছ বাজার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট সদর ইউনিয়ন মৎস্য সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা ছরওয়ার হোসেন, বিএনপি নেতা ফয়সল চৌধুরী, জেলা পরিষদ সদস্য নজরুল হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যার শরিফ উদ্দিন, চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ, গৌছউদ্দিন প্রমুখ। প্রধান অতথির বক্তব্যে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, দুইশত বছরের মাছ বাজার উচ্ছেদ করে পৌরসভার দায়িত্বশীলরা ভাল কাজ করেননি। তারা সঠিক কোন সমাধান না দিয়ে উল্টো আমাদের সাথে প্রতারণা করেছেন। পৌর প্রশাসক তফজ্জুল হোসেন প্রতারণা করে আমাদের ঠকিয়েছেন আর বর্তমান মেয়র আমাদের নিজ বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি মাছবাজার ব্যতিত অন্য কোন জায়গায় মাছ বিক্রি না করতে সবার প্রতি আহবান জানান। কেউ বাড়ি বাড়ি গিয়ে মাছ বিক্রি করলে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ছরওয়ার হোসেন বলেন, বিষয়টি কিছুটা হলেও জটিল হয়ে গেছে। আমি শিক্ষামন্ত্রী, উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌর মেয়রসহ দায়িত্বশীলদের সাথে আলোচনা করে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করবো। তিনি বলেন, আমি আপনাদের সাথে রয়েছি। আলোচনার বিষয়গুলো নিয়েও আপনাদেরকে অবহিত করবো। বিশেষ অতিথি ফয়সল আহমদ চৌধুরী বলেন, মৎস্যজীবীদের সকল ন্যায্য অধিকার আদায়ে আমরা পাশে আছি। কোন অন্যায় আচরণ আমরা মেনে নেব না। মৎস্যজীবীদের দুইশ বছরের জায়গা নিয়ে পৌরসভা যে প্রতারণা করেছে এর জবাব তাদের দিতে হবে। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে অতিথিরা ফিতা কেটে ‘হাজী রসিম উদ্দিন মার্কেট’ এর উদ্বোধন করেন। এ মার্কেটে মাছ ছাড়াও সবজি, মোরগ কিচেন মার্কেটের যাবতীয় পণ্য পাওয়া যাবে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন