লন্ডনের স্থায়ী বাসিন্দার সোনা ভর্তি ব্যাগ ফিরিয়ে দিলেন অটোচালক

266
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক //

পেশায় অটোচালক। আয় বলতে কোনোদিন কম তো কোন দিন একটু বেশি। সেই রোজগারেই এতগুলো পেটের খোরাক যোগানো। অভাবের সংসারে টানাটানি তো নিত্যদিনের ঘটনা। তাই দিয়েই কোনরকমে সন্তান সন্ততি নিয়ে দিনযাপন। আর্থিক সংগ্রামের মধ্যে জীবনে সততাই একমাত্র পাথেয়। তাই অবলীলায় ফিরিয়ে দিতে পারেন বিদেশি পর্যটক দম্পতির হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ।

বিপিন প্যাটেল। পেশায় ভারতের মুম্বইয়ের অটোচালক। গত ১৮ তারিখ মিরা রোডে অনাবাসী ভারতীয় পর্যটকদের নামিয়ে ফিরছিলেন। হঠাৎই চোখ পড়ে পিছনের সিটে পড়ে থাকা ব্যাগের দিকে। বুঝতে পারেন এ ব্যাগ ওই পর্যটক দম্পতিরই। ব্যাগ খুলে দেখেন ব্যাগে রয়েছে সোনার গহনাও , দাম প্রায় কয়েক লাখ টাকা। তখনিই অটো নিয়ে পৌঁছে যান মিরা রোডের সেই জায়গায়, আশা যদি ওই দম্পতি ওখানেই আসেন হারানো ব্যাগের খোঁজে। দেখা না পেয়ে অগত্যা কাশিমীরা পুলিশ স্টেশন হারানো ব্যাগ জমা করেন।

বিপিনের বিবরণ শুনে লোকাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ ওই দম্পতির খোঁজ চালায়। জানতে পারেন ওই বিদেশি পর্যটক দম্পতির নাম জুলফিকার লাখদাওয়ালা ও রাচনা। পেশায় দুজনেই আইনজীবী। ২০০২ থেকে লন্ডনের স্থায়ী বাসিন্দা। লন্ডন থেকে ভারত ভ্রমণে এসেছেন। গরীব অটোচালকের সততায় মুগ্ধ দম্পতি। ব্যাগ খুইয়ে ফিরে পাওয়ার আশা প্রায় ছেড়েই দিয়েছিলেন। অটোচালক যে নিজে দায়িত্ব নিয়ে ব্যাগ ফিরিয়ে দেবেন ভাবতেই পারেননি।