ঝিনাইদহে শীতজনিত রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি

499
gb

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-
শীতের তীব্রতা বাড়ার সাথে সাথে ঝিনাইদহ জেলায় শীতজনিত রোগ-ব্যাধির প্রকোপ বেড়েছে। বিশেষ করে ঠাণ্ডাজনিত নিউমোনিয়া ও ডাইরিয়া। প্রতিদিন গড়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছে ২ শতাধিক শিশু। শীতের তীব্রতা বাড়ার সাথে সাথে শহর-গ্রাম সর্বত্র নিউমোনিয়া ও ডাইরিয়ার ব্যাপক প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। শিশুরা এ রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। সদর হাসপাতালসহ উপজেলা হাসপাতালগুলোতে প্রতিদিন আক্রান্ত রোগীর ভিড় বাড়ছে। সদর হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে রোগী গিজগিজ করছে। যাদের রোগ জটিল তাদের ভর্তি করা হচ্ছে। অন্যদের আউটডোরে চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি পাঠানো হচ্ছে। ডাইরিয়া ছাড়াও নিউমোনিয়াতে শিশুরা আক্রান্ত হচ্ছে। চিকিৎসা নিতে আসা সদর উপজেলার হরিশংকরপুরের মিনা খাতুন বলেন, আমার মেয়ে মিম আজ ৮দিন নিউমোনিয়া রোগে চিকিৎসায় ছিলেন। বর্তমান সুস্থ আছে। ছাড়পত্র পেলে বাসায় যাব।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিশু রোগী মাহফুজ এর মা শিরিনা খাতুন বলেন, হাসপাতালে এখন চিকিৎসা ভাল হচ্ছে। এখন আর আগের মত নেই।
সিনিয়র স্টাফ নার্স রাজিয়া সুলতানা বলেন, বর্তমান শিশু রোগীর সংখ্যা প্রায় ৫০জন। তারমধ্যে নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা বেশী।
ঝিনাইদহ সদর হাসাপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট শিশু ডা. মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম জানান, গত ২/৩ মাস পূর্বে আক্রান্ত শিশু রোগীর সংখ্যা ছিল আরো বেশী। বর্তমান যে সমস্ত রোগী ভর্তি আছে। তাদের সুচিকিৎসা চলছে।
ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন ডা: রাশেদা সুলতানা বলেন, প্রতি বছর শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পেলে কোল্ড ডাইরিয়া ও নিউমোনিয়া রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যায়। তিনি বলেন, আক্রান্তদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ওষুধের অভাব নেই বলে তিনি জানান।