ব্রিটেনে করোনাভাইরাসে ৩৩৫ জনের মৃত্যু

74
gb

জিবি নিউজ অনলাইন ডেস্ক ||

ব্রিটেনে  করোনাভাইরাসে ৩৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা গতকাল পর্যন্ত ছিলো ২৮১ জনে। আজ নতুন করে ৫৪ জনের মৃত্যু খবর নিশ্চিত করেছে এনএইচএস। এদিকে সর্বমোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮৩৭জন।

অন্যদিকে ব্রিটেনে মাত্র ১৮ বছর বয়সী যুবক ভাইরাসে মারা গেছেন বলে জানিয়েছে এনএইস এস ।
এদিকে হেলথ সেক্রেটারী ম্যাট হ্যানকক বলেছেন, যারা সরকারের স্বাস্থ সেবার পরামর্শ মানছেনা তাদেরকে স্বার্থপর হিসেবে উল্লেখ করেছেন। গতকাল রবিবার বিভিন্ন পার্কে লোকজনের জমায়েতের ছবি দেখে তিনি এমন মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, প্রয়োজনে আরো কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।
এনএইচএস জানিয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় যারা মারাগেছেন তাদের বেশির ভাগেরই বয়স ৪৭ থেকে ১০৫ বছরের মধ্যে। এদিকে শুধুমাত্র লন্ডনে গত ২৪ ঘন্টায় ১৬জন মারাগেছেন। এর আগে একদিনে লন্ডনে এত মৃত্যু হয়নি।

ব্রিটেনকে লকডাউন করার চিন্তা করছে সরকার

ব্রিটেনের জনগন করোনাভাইরাস আইন না মানায় এবং মৃত্যু সংখ্যা দিন দিন বাড়তে থাকায় “খুব শীঘ্রই” ব্রিটেনকে লকডাউন করার চিন্তা করছে সরকার । কারণ প্রধানমন্ত্রী করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় এক দিনের মধ্যে হাউজ অব কমন্সের মাধ্যমে নতুন আইন প্রয়োগের বিষয়টি বিবেচনা করছেন।
সংসদ সদস্যরা সাপ্তাহিক ছুটির পরে সংসদে ফিরে আসছেন সরকারের করোনাভাইরাস বিলে তার সমস্ত পর্যায়ে বিতর্ক করতে, হাউস অফ লর্ডসে যাওয়ার আগে এবং এই সপ্তাহের শেষের দিকে আইন হওয়ার কথা।
কমন্সের বিতর্কটি প্রধানমন্ত্রীর এক কঠোর সতর্কবার্তা অনুসরণ করে জানিয়েছে যে যুক্তরাজ্য একটি লকডাউনের দিকে এগিয়ে চলেছে।
সর্বশেষ ডাউনিং স্ট্রিট সংবাদ সম্মেলনে মিঃ জনসন বলেছিলেন, লোকেরা দুই মিটার দূরে থাকতে ব্যর্থ হলে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে COVID-19 এর বিস্তার রোধে আরও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
তিনি স্বীকার করেছেন যে বাইরের থাকা “স্বাস্থ্য, শারীরিক ও মানসিক সুস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ”, তবে মানুষকে “নিজেকে নতুন করে বায়ু স্বয়ংক্রিয়ভাবে কিছুটা অনাক্রম্যতা দেয়” এমনটা ভাববার জন্য সতর্ক করে দিয়েছিল।

Source : OneBangla

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন