`ট্রাম্প‌-মোদি জুটি গোটা বিশ্বের জন্য ক্ষতিকর’

3
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

আর কয়েক ঘণ্টা পরই ভারতের মাটিতে পা রাখবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু তার আগেই ট্রাম্প সফর নিয়ে শুরু প্রতিবাদ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং ট্রাম্পের সাক্ষাৎকে ‘স্বৈরাচারী জোট’ বা ফ্যাসিস্ট অ্যালায়েন্স বলেই ব্যাখ্যা করছেন গুজরাটের বিদ্বজ্জনরা। সমাজকর্মী, বিদ্বজ্জন এবং পড়ুয়াদের একটি ১৬০ জনের দলে এই মর্মে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন। যেখানে তাঁরা উল্লেখ করেছেন, মোদি-ট্রাম্প জোট শুধু ভারতের জন্যই নয়, গোটা বিশ্বের জন্য ক্ষতিকর।

২৪ ফেব্রুয়ারি, অর্থাৎ সোমবার ভারত সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট । এই সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট মূলত আমেদাবাদ এবং উত্তরপ্রদেশে সময় কাটাবেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একাধিক কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। আমেদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামে তাঁকে স্বাগত জানাতে ‘নমস্তে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প’ নামের একটি অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করেছে ভারত। মার্কিন প্রেসিডেন্টের যাওয়ার কথা গান্ধীজির স্মৃতি বিজড়িত সবরমতী আশ্রমেও। পাশাপাশি তাজমহল দর্শনের পরিকল্পনাও রয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের। কর্মসূচীতে ধর্মীয় স্বাধীনতা ও নাগরিক আইন সংশোধনী প্রসঙ্গও তুলতে পারেন ট্রাম্প বলে হোয়াইট হাউস সূত্র ইঙ্গিত দিয়েছে। ভারত সফরের জন্য যে প্রহর গুণছেন ট্রাম্প, তা তাঁর টুইট থেকেই স্পষ্ট। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া তাঁর ‘বাহুবলি’ লুকের ভিডিও রিটুইট করেছেন প্রেসিডেন্ট।

 

সঙ্গে লিখেছেন, “ভারতের ভাল বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করার অপেক্ষায় আছি।”

কিন্তু এই সফরকে ভালভাবে নিচ্ছেন না গুজরাটের বিদ্বজ্জনরা। খোলা চিঠিতে তাঁরা লিখেছেন, “বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতন্ত্রের সঙ্গে সবচেয়ে শক্তিশালী দেশের এই জোট ভারতের জন্য তো বটেই, গোটা বিশ্বের জন্যই বিপজ্জনক। ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা এবং গণতন্ত্রে ক্ষয় ধরাতে চাওয়া এই জোটকে আমরা কোনওভাবেই সমর্থন করি না।”

এখানেই শেষ নয়, ট্রাম্পের আগমনের জন্য সরকার যেভাবে বস্তি উচ্ছেদ করেছে, তারও নিন্দা করা হয়েছে চিঠিতে। বলা হয়েছে, “যারা নাগরিকদের দেশ থেকে বিতাড়িত করে, তাদের জন্য ঘরছাড়া করা হচ্ছে হাজারো মানুষকে। যা একেবারেই সমর্থনযোগ্য নয়।” ট্রাম্পকে ‘গরিব বিদ্বেষী’, ‘ইসলামবিদ্বেষী’ এবং ‘বর্ণবিদ্বেষী’ বলেও কটাক্ষ করা হয়েছে।

পাশাপাশি চিঠিতে নাগরিক আইন সংশোধনী নিয়ে তীর বিদ্ধ করা হয়েছে মোদিকেও। প্রতিবাদীদের এও দাবি, ট্রাম্পের ভারত সফরের ১৫ দিন আগে থেকে যে কোনওরকম আন্দোলনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে গুজরাট সরকার। যা নাগরিকদের মৌলিক অধিকারের বিরোধী।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন