বীর মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক ইসহাক কাজলের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

40
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

প্রবীণ সাংবাদিক ও লেখক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসহাক কাজলের নামাজের জানাযা সম্পন্ন হয়েছে ১২ ফেব্রুয়ারী বুধবার। এতে বিপুল সংখ্যক কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, লেখক, রাজনীবিদগন উপস্থিত ছিলেন।

পূর্ব লন্ডনের ব্রিকলেন জামে মসজিদে জানাযা শেষে  হ্যানল্টের গার্ডেন অব পিস-এ (Gardens of Peace (Five Oaks Lane) in Hainault) দাফন করা হয় একাত্তরের রনাঙ্গনের বীর এই মুক্তিযোদ্ধাকে। তাকে সমাহিত করার আগে তাঁর রনাঙ্গনের সহযোদ্ধা মুক্তিযোদ্ধারা তাঁকে শেষ স্যালুট,  গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

এর আগে ব্রিকলেইন মসজিদে নামাজে জানাযা শেষে বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে রাস্ট্রীয় মর্যাদা প্রদান করে তার কফিনে ফুলদেন প্রেস মিনিস্টার আশিকু নবী চৌধুরী।

 

জানাযার নামাজ শেষে বিভিন্ন বাংলা মিডিয়ার সাথে আলাপ কালে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ মরহুম ইসহাক কাজলের নানা কর্মবহুল কর্মকান্ডের কথা গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তারা বলেন, ইসহাক কাজল মনে প্রাণে যেটি বিশ্বাস করতেন সেটি করতে, নানা ঘাত প্রতিঘাতে পিছপা হতেননা। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি তার আদর্শে অটল ছিলেন। তিনি সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন। কমিউনিটির মানুষ তাকে  একজন আদর্শবান সাংবাদিক ও রাজনীবিদ হিসেবে উল্লেখ করে তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।

উপস্থিত সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, তিনি শুধু সাংবাদিক হিসেবে সাহসীকতার স্বাক্ষর রাখেননি, তিনি চা শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবী দাওয়া ও মাগুরছড়া সহ বাংলাদেশের খনিজ সম্পদ রক্ষার আন্দোলনে একজন অগ্রসৈনিক ছিলেন।

 

উল্লেখ্য গত সোমবার লন্ডন সময় বিকেল ৫.২৫ মিনিটে গ্রেটার লন্ডনের রমফোর্ড কুইন্স হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রবীণ সাংবাদিক ইসহাক কাজল।  তাঁর বয়স হয়েছিলো  ৭২ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও ছেলে, মেয়ে, নাতি নাতনী, আত্মীয় স্বজন এবং রাজনৈতিক ও সাংবাদিকতা অঙ্গনের সহকর্মীসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন