সারাজীবন এই অপবাদ বয়ে বেড়াতে চাই না: ট্রাম্প

38
gb

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক//

মার্কিন সিনেটে ইমপিচমেন্ট তদন্ত পুরোপুরি বাতিলের আহ্বান জানালেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ অন্যদিকে বিরোধী ডেমোক্র্যাটরা নানাভাবে এই তদন্ত সফল করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে৷

মার্কিন সংসদের নিম্নকক্ষে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট তদন্তের পর উচ্চকক্ষে এবার সেই প্রক্রিয়ার তোড়জোড় চলছে৷ সেখানে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান দলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকা সত্ত্বেও ট্রাম্পকে ক্ষমতাচ্যুত করার ঝুঁকি পুরোপুরি দূর হচ্ছে না৷

হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সব তথ্যপ্রমাণ সিনেটের হাতে তুলে দেওয়ার পর তদন্ত কমিটির সদস্যরা সেগুলি যাচাই করে তারপর সাক্ষী তলবের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চান৷ কিন্তু অ্যামেরিকার ইতিহাসে তৃতীয় ইমপিচমেন্ট তদন্তকে ‘লোক দেখানো’ করে তোলার বদলে আন্তরিক উদ্যোগের জন্য সিনেটের উপর চাপ বাড়ছে৷

পেলোসি সেনেটের সদস্যদের সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, নতুন সাক্ষীদের বয়ানের সুযোগ না দিলে তাঁদের মূল্য চোকাতে হবে৷ মঙ্গলবার সকালে তিনি ডেমোক্র্যাটিক দলের নেতাদের সঙ্গে মিলে পরবর্তী পদক্ষেপ স্থির করতে চান৷

এমনই প্রেক্ষাপটে সিনেটের উদ্দেশ্যে ইমপিচমেন্ট তদন্ত পুরোপুরি বাতিল করার ডাক দিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প৷ রোববার এক টুইট বার্তায় এমন চাঞ্চল্যকর প্রস্তাব রাখেন তিনি৷

ট্রাম্পের মতে, সিনেট আদৌ ইমপিচমেন্ট তদন্তের পথে এগোলে বিরোধী ডেমোক্র্যাট দলের ‘উইচ হান্ট’ বা তাঁর বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত প্রক্রিয়াকে বিশ্বাসযোগ্যতা দেওয়া হবে৷ ট্রাম্প নিজেকে নির্দোষ হিসেবে দাবি করে বলেছেন, তিনি সারা জীবন এই অপবাদ বয়ে বেড়াতে চান না৷

উল্লেখ্য, প্রাক্তন জাতীয় উপদেষ্টা জন বোল্টন সাক্ষ্য দেওয়ার আগ্রহ দেখানোর পর থেকে ট্রাম্প আরও দুশ্চিন্তায় ভুগছেন৷ ইউক্রেন কেলেঙ্কারির বিষয়ে বোল্টনের সাক্ষ্য ট্রাম্পের জন্য অত্যন্ত অস্বস্তিকর হয়ে উঠতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে৷ রাজনৈতিক স্বার্থে তিনি ইউক্রেনের উপর অন্যায় চাপ সৃষ্টি করে ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন, এমন অভিযোগের পক্ষে আরও তথ্যপ্রমাণ প্রকাশ্যে এলে রিপাবলিকান দলের ঐক্যে ফাটল ধরতে পারে৷ তাদের উপর আরও চাপ সৃষ্টি করতে নিম্ন কক্ষই সরাসরি বোল্টনকে তলব করার ইঙ্গিত দিচ্ছে৷ ট্রাম্প বিশেষ ক্ষমতা প্রয়োগ করে বোল্টনকে সাক্ষ্য দেওয়া থেকে বিরত করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন৷

এখনো পর্যন্ত রিপাবলিকান দল ঐক্যবদ্ধভাবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রতি সমর্থন দেখিয়ে চলেছে৷ তবে সাক্ষী তলবের প্রশ্নে সামান্য হলেও কিছু মতপার্থক্য দেখা যাচ্ছে৷ ইরানের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্টের আরও সামরিক পদক্ষেপের আগে কংগ্রেসের অনুমোদনের প্রশ্নে কয়েকজন রিপাবলিকান সংসদ সদস্য বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রতি সমর্থনের আভাস দিচ্ছেন৷ ইমপিচমেন্ট তদন্তের ক্ষেত্রেও এমন ‘বিচ্যুতি’ ট্রাম্পের জন্য বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে৷ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কয়েক মাস আগে এমন ঘটনা ট্রাম্পের জন্য মোটেই সুখকর হতে পারে না বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন৷

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More