পেঁয়াজের ঝাঁজে অস্থির সাতক্ষীরার বাজার

50
gb

শাহীন গোলদার,সাতক্ষীরা পেঁয়াজের ঝাঁজে অস্থির সাতক্ষীরার বাজার। বর্তমানে পেঁয়াজ কেজি প্রতি সাতক্ষীরার পাইকারী বাজারে বিক্রি হচ্ছে ২০৫ থেকে ২১০ টাকা। আর খুচরা বাজারে এই পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকায়। আজ রোববার সাতক্ষীরার সুলতানপুর বড়বাজার ও টাউন বাজার এবং পাটকেলঘাটা বাজার ঘুরে দেখা গেছে পেঁয়াজের এই লাগামহীন দর। এক দিনে ঁেপয়াজের দাম কেজিতে ২০টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে ক্রেতাসাধারণ দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে আগে প্রতিদিন কমপক্ষে ৮০ থেকে ১০০ পেঁয়াজের ট্রাক প্রবেশ করতো। কিন্তু ভারত সরকার বর্তমানে বংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেয়ায় এখন আর ভোমরা স্থল বন্দরে কোন পেঁয়াজের ট্রাক প্রবেশ করছেনা। যার কারনে প্রতিদিনই বেড়েই চলেছে পেঁয়াজের দাম। পেঁয়াজের দাম শুনে ক্রেতারা রীতিমত হিমশিম খাচ্ছেন। প্রায় প্রতিটি দোকানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৩০ থেকে সর্বোচ্চ ২৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পেঁয়াজের এই উর্ধগতির ফলে জেলার মধ্যবিত্ত নিন্ম-মধ্যবিত্ত পরিবার গুলো চরম বিপাকে পড়েছে। সাতক্ষীরা শহরের কামালনগরের এলাকার মো.আমিনুর রহমান ও পাটকেলঘাটার মজিবুর রহমান জানান, কোন উপায় না পেয়ে আমরা ২৩০ থেকে ২৪০ টাকা দামে পেঁয়াজ কিনতে বাধ্য হচ্ছি। ক্রেতারা পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে বাকবিতন্ডা করেও কোনো লাভ হচ্ছে না। দোকানদাররা চোখ বন্ধ করে দাম হাঁকাচ্ছেন পেঁয়াজের। এক টাকাও কম নেই। সাতক্ষীরার সুলতানপুর বড়বাজার কাঁচাবাজার ব্যবসায়ী সমিতি সাধারন সম্পাদক রওশন আলী জানান, বাজারে দেশি পেঁয়াজের সংকট আর আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজ বাজারে না আসায় দাম বেড়েই চলেছে। তারা আরো বলেন, বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ অনেক কম হওয়ায় পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে, ক্রেতা সাধারন দ্রæত পেঁয়াজের মূল্য নিয়ন্ত্রনে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল বলেন, প্রতিদিনই পেয়াজের দাম বাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাংলাদেশে পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়টি জনমনে একটি উদ্বেগ রয়েছে। সাতক্ষীরায়ও প্রতিদিন পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিষয়টি লক্ষ্য বাজারে নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে বাজার মনিটরিংসহ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে। ক্রয়মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত বেশী লাভ করলে ওই সব পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের মোবাইল কোর্টে সাজা দেয়া হবে।##

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More