নবীগঞ্জে ফুটবল টুর্নামেন্টে অনিয়মের অভিযোগে এলাকায় উত্তেজনা : ৫ মৌজার লোকজনের প্রতিবাদ সমাবেশ

341
gb

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি  ||

নবীগঞ্জে শাহ্ মুশকিল আহসান নক আউট ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় অনিয়মের প্রতিবাদে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে গজনাইপুর ইইনয়নের শতক বাজারে দিনারপুর পরগনার ৫ মৌজার লোকজন প্রতিবাদ সমাবেশ করেন। দেবপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান এডভোকেট মোঃ জাবেদ আলীর সভাপতিত্বে ও আমিনুল ইসলাম এলাইেেচর পরিচালনায় এতে বক্তব্য দেন নবীগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আশরাফ আলী, বিশিষ্ট মুরুব্বি এলাইছ মিয়া, সফিউল আলম বজলু, সাবের আহমেদ চৌধুরী, জাহেদুজ্জামান তুলা, কাপ্তান মিয়া, দেওয়ান সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, আব্দুল লতিফ, সাবেক মেম্বার আলফাজ মোহম্মদ আনফাল, অনু আহমেদ, আঃ রশিদ, আইয়ুব আলী প্রমুখ। প্রতিবাদ সমাবেশে ৫ মৌজার হাজারো লোকজন অংশ গ্রহন করেন। বক্তারা বলেন, গত মঙ্গলবার বিকেলে অনুষ্ঠিত মুশফিল আহসান ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় রেফারী ও আয়োজক কমিটি পক্ষপাতিত্ব করেছে এবং ইনাতগঞ্জের নামে যে দল অংশগ্রহন নিয়েছে মূলত সেই দল আয়োজকদের নিজ গ্রামের। তারা আরো বলেন, রেফারীকে দিয়ে তারা অনৈতিকভাবে আমাদের মূল খেলোয়ারকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠের বাহিরে পাঠিয়ে ফলাফল তাদের পক্ষে নেওয়ার অপচেষ্টা করেছেন।
উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার উপজেলার সাতাইহাল গ্রামে মুশফিল আহসান ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় শুরুর ২০ মিনিটের মাতায় শতক টিমের একজন খেলোয়াড়কে রেফারী কতৃক লাল কার্ড দেখালে তারা রেফারী ও কমিটির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে খেলা বয়কট করে। কমিটির অপর টিমকে বিজয়ী ঘোষনা করে। উক্ত ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন (হবিগঞ্জ-সিলেট) সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য এড. আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী। অভিযোগ উঠে, হাজার হাজার দর্শকের মতামত উপেক্ষা করে অনেকটা দাফটের সাথেই বিতর্কিত বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। এনিয়ে এলাকায় নানা আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে।