শিবগঞ্জে যুবকের দু’হাতের কব্জি কেটে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা,আটক ২

41
gb

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবানগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় রুবেল হোসেন (২৭) নামে এক যুবকের দুহাতের কব্জি কেটে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা। গত বুধবার (১৮’সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টার দিকে উজিরপুর ইউনিয়নে পদ্মা নদীর বেড়ি বাঁধ এলাকায় নৃশংস এ ঘটনা ঘটে। আশংকাজনক অবস্থায় রুবেলকে রাজশাহী মেডিক্যাল করেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বৃহস্পতিবার(১৯’সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাহাঙ্গীর ও আলাউদ্দিন নামে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।
রুবেল শিবগঞ্জের রানীহাটী বাজার এলাকার মৃত. খোদা বক্সের ছেলে।
রুবেলের পরিবার দাবী করেছে,পদ্মা নদীর একটি ফেরি ঘাটের (নিউ পদ্মা ফেরি ঘাট) দখল মালিকানা নিয়ে তাদের সাথে উজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজউদ্দিন ও তার লোকজনের সাথে পূর্ব শত্রুতা ছিল। তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তারা।পরিবার সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় সাংসদের সাহায়্যে একটি মধ্যস্থতার পর ইদানিং চেয়ারম্যানের সাথে তারা মিলে মিশেই ফেরিঘাট পরিচালনা করতেন। তবে চেয়ারম্যানের লোকজন ফেরিঘাটের পুরো নিয়ন্ত্রণ নিজেরাই নিতে চাচ্ছিল।
পরিবার সূত্র আরও জানায়,বুধবার রাতে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে রুবেল ও তার দুই বন্ধুকে পথরোধ করে চেয়ারম্যানের অফিসে যেতে বলে সন্তাসীরা। তারা চেয়ারম্যানের অফিসে গেলে বন্ধুদের সেখানে আটকে রাখা হয়। আর রুবেলকে মুখ,চোখে গামছা বেঁধে পদ্মা বাঁেধর নিকট ধরে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। সেখানে তার দুহাতের কব্জি কেটে নেয়া হয়। ঘটনার খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন রাত ১টার দিকে রুবেলকে বাঁধ এলাকা থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতিকুল ইসলাম বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে জানান, ঘটনার খবর পাবার পর থেকে পুলিশের একাধিক দল ওই এলাকায় অভিযান ও তদন্ত চালাচ্ছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চেয়ারম্যানের দুই সহযোগি ওই এলাকার জাহাঙ্গীর ও আলাউদ্দিন নামে দুজনকে আটক করা হয়েছে। তবে ছেযারম্যানকে পাওয়া য়ায়নি। এদিকে রুবেলের পক্ষে বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ বা মামলা করা হয়নি বলেও জানান পরিদর্শক আতিকুল।
এদিকে এ ঘটনার ব্যাপারে ইউনিয়ন আ’লীগ নেতা চেয়ারম্যান ফয়েজউদ্দিনের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More