চাঁপাইনবাবগঞ্জ বিজিবি’র উদ্যোগ সোনামসজিদ স্থলবন্দরে আমদানী পণ্যবাহী গাড়ী পরীক্ষায় চালু হচ্ছে এক্স-রে স্ক্যানার মেশিন

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দরে ভারত থেকে আমাদানী পন্যবাহী গাড়ীতে অবৈধ মালামাল সনাক্তকরণে শীঘ্রই চালু হবে অত্যাধনিক ভেহিক্যাল এক্সরে স্ক্যানার মেশিন। বিজিবি মহাপরিচালকের উদ্যোগে বিজিবি’র অর্থায়নে এই মেশিন বসানো হচ্ছে। সোমবার(১৬’সেপ্টেম্বর) সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫৯’বিজিবি ব্যাটালিয়ন (রহনপুর) অধিনায়ক লে.কর্ণেল মাহমুদুল হাসান সদর উপজেলার গোবরাতলা এলাকায় ব্যাটালিয়ন সদরে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিং-এ তথ্য জানান। এ সময় ব্যাটালিয়ন উপ-অধিনায়ক মেজর মির্জা মাঝহারুল ইসলাম সহ ব্যাটালিয়নের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এ বছরের ১’জানুয়ারী থেকে ৩১’আগষ্ট পর্যন্ত  ৮ মাসে ৫৯’ বিজিবি ব্যাটালিয়নের সীমান্ত কর্মকান্ড নিয়ে আয়োজিত ব্রিফিং-এ অধিনায়ক আরও জানান, সোনামসজিদ ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টে (আইসিপি) দায়িত্ব পালন করে এই ব্যাটালিয়ন। গত ৮ মাসে এই চেকপোষ্ট দিয়ে ৭৫হাজার ৩৮৫ জন ভারত যাতায়াত করেছেন। যাদের মধ্যে ২০ হাজার ১৯৭ জন বিদেশী ও ৫৫হাজার ১৮৮ জন বাংলাদেশী নাগরিক।
এছাড়া ওই সময়ে ভারত থেকে আমাদানী পণ্যবাহী গাড়ির সংখ্যা ছিল ৪১ হাজার ৪৭টি ও রপ্তানী পন্যবাহী গাড়ির সংখ্যা ছিল  ৬৫২টি। বন্দরে রাজস্ব আদায় হয়েছে ২শত ৩৫ কোটি ৩৩ লক্ষ ৬৩ হাজার টাকা।
অধিনায়ক জানান,গত ৮ মাসে ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক থেকে বিওপি কমান্ডার পর্যায়ে ব্যাটালিয়নের দায়িত্বপূর্ন সীমান্ত এলাকায় ৭৫টি জনসচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সীমান্তবাসী বিভিন্ন ¤্রিেণ-পেশার মানুষের অংশগ্রহণে ওইসব সভায় সীমান্ত হত্যা,অবৈধ সীমান্ত পারাপার,নারী ও শিশু পাচার,কাঁটা তারের বেড়া কাটা, মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার,পুশ ইন, অবৈধ অস্ত্র-গোলাবারুদ এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রোধে আলোচনা হয়েছে।
ব্রিফিং-এ লে.কর্ণেল মাহমুদুল হাসান আরও জানান,উল্লেখিত সময়ে জেলার সদর, শিবগঞ্জ,গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট এই ৪ উপজেলা সীমান্তে ১৬টি বিওপি ও কয়েকটি চেকপোষ্ট বসিয়ে দায়িত্বপালনকারী ব্যাটালিয়ন সদস্যরা বিভিন্ন অভিযানে প্রায় ৩ কোটি ৭৪ লক্ষ টাকার বিভিন্ন প্রকার মাদকদ্রব্য ও চোরাচালানী মাল আটক ও উদ্ধার করেছে। এছাড়া উদ্ধার হয়েছে পিস্তল,ওয়ান শ্যুটার গানসহ ৩৯টি আগ্নেয়াস্ত্র ৮৮ রাউন্ড গুলি, ২৪ টি ম্যাগজিন ও ২টি এয়ার গান। এসব অভিযানে গ্রেফতার হয়েছেন ৪৩ জন ও মামলা হয়েছে ৬৯ জনের বিরুদ্ধে।

অধিনায়ক ব্রিফিং-এ সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন