এইচএসসি পাশ যুবতী মঘেলার ৬০ বছররে বৃদ্ধ স্বামী

67
gb

।। জিবি নিউজ।।
নাম মঘেলা। সবে মাত্র এইচ.এস.সি পাশ করছে।ে কোটচাঁদপুর উপজলোর কাগমারী গ্রামরে মোমনিুর রহমানরে ময়ে।ে অথচ এই বয়সে সে বপেরোয়া জীবন যাপন। যুবক বৃদ্ধসহ বভিন্নি বয়সরে মানুষকে র্টাগটে করে তরৈী করে বয়িরে প্রতারণার ফাঁদ। রাজনতৈকি দলরে ছত্রছায় কালীগঞ্জ-চুয়াডাঙ্গা সড়কে এই চক্ররে আনাগোনা। অনকে মানুষ র্সবশান্ত হলওে কোন প্রতকিার নইে। নইে প্রশাসনরে অভযিান। ফলে দনিকে দনি তারা বপেরো হয়ে উঠছে।ে মঘেলা চক্ররে প্রতারণার ফাঁদে পড়ে অনকেইে আজ নঃিস্ব। এমন একজন স্কুল শক্ষিক কালীগঞ্জরে প্রায় ৬০ বছররে এক বৃদ্ধ স্কুল শক্ষিক। তাকে অপরণ করে ভুয়া কাবনি বানয়িে বয়িরে ছক তরৈী করছেে মঘেলা। কোটচাঁদপুর হাসপাতাল সূত্রে জানা গছে,ে গত ৭ মাসে বহু অজ্ঞান রোগকিে তারা চকিৎিসা দয়িছেনে। কন্তিু কারা এই অজ্ঞান র্পাটরি হোতা ? সুত্র জানায় কছিু উঠতি বয়সী যুবকদরে নয়িে মঘেলা খাতুন প্রতারক চক্র গঠন করছে।ে মঘেলা খাতুন এই বছর এইচএসসি পাশ করছেে কোটচাঁদপুর পৌর কলজে থকে।ে মঘেলার সাথে আছে জালালপুররে মৃত আজগার আলীর ছলেে নাসরি উদ্দনি, মৃত মাহবুব আলীর ছলেে ওবায়দুল হক, ফুড গোডাউনরে র্গাড আমজাদ আলীর ময়েে শারমনি আক্তার, বহরমপুর গ্রামরে আব্দুল মালকেরে ছলেে আবু হানফি, কুশনা ইউনয়িনরে ম্যারজে রজেষ্টিার রজোউল হক ও কালীগঞ্জরে মনরিুল। মঘেলার বাড়ি কাগমারি হলওে সে কোটচাঁদপুর গাবতলাপাড়া একটি বাড়তিে একাই ভাড়া থাক।ে এখানে তার সাথে র্সাবক্ষনকি দখোশোনা করে গাবতলা পাড়ার মাসুম, নাইম, হৃদয় ও দুধসারা গ্রামরে প্রদীপ। মঘেলা কোটচাঁদুপর শহরে একটি আলোচতি নাম। তার বপেরোয়া চলাফরোর কারণে বভিন্নি জায়গায় বাসাভাড়া নয়িে বশেি দনি টকিে থাকতে পারনে।ি ইদানংি মঘেলা ৬০ বছররে এক বৃদ্ধকে নজিরে স্বামী দাবি করে আদালতে যৌতুকরে মামলা করছে।ে এর আগওে সে এরকম ভুয়া বয়িে দখেয়িে মানুষরে কাছ থকেে টাকা পয়সা হাতয়িে নয়িছে।ে তার পতিা মোমনিুর রহমান দাবী করছেে তার ময়েরে কোন জায়গায় বয়িে হয়ন।ি পতিার কথা যদি সঠকি হয় তবে এই বৃদ্ধরে নামে কনে বয়িে ও যৌতক মামলা করা হলো ? এমন হাজারো প্রশ্ন ঘুরপাক খলেওে প্রশাসনকি কোন পদক্ষপে না থাকায় মানুষ জমিি করে মুক্তপিণ আদায়, অজ্ঞান করে টাকা পয়সা লুট ও র্আথকি সম্পদশালী ব্যাক্তদিরে বয়িরে ফাঁদে ফলেে মঘেলা অপর্কম চালয়িে যাচ্ছ।ে

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More