ঢাকায় শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’-এর নতুন ছবি

79
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

হলিউডের ছবির দর্শকদের নড়ে-চড়ে বসার সময় হয়েছে। আবার পর্দায় আসছে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’। চোখ ধাঁধানো গতির খেলা আর ধুন্দুমার অ্যাকশনের সেই সব দৃশ্য চোখে লেগে আছে নিশ্চয়ই দর্শকদের। এ নিয়ে মোট ৮টি ছবি পর্দায় এসেছে এই ফ্রাঞ্চাইজির। সবগুলো ছবিই বক্স অফিস মাত করেছে। সবশেষ ছবিটি মুক্তি পেয়েছিলো ২০১৭ সালে। এরপর থেকে ভক্তরা মুখিয়ে ছিলেন নতুন ছবির জন্য। অপেক্ষার পালা খুব বেশি দীর্ঘ করেননি প্রযোজকরা। আগামী ২ আগস্ট বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেতে যাচ্ছে সিরিজের নতুন ছবি ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস: হবস অ্যান্ড শ’। বাংলাদেশের দর্শকরাও একই দিন থেকে ছবিটি দেখতে পাবেন ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে।

‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ সিরিজ মানেই দুরন্ত গতি আর রোমাঞ্চ। সেই সঙ্গে এক ফ্রেমে থাকছে ভিন ডিজেল, ডোয়াইন জনসন ও জেসন স্ট্যাথামের মতো অ্যাকশন তারকাদের অভিনয়। এবার তাঁদের সঙ্গে যোগ দিলেন অভিনেতা ইদরিস এলবা। তবে তার চরিত্রটি নেতিবাচক। ডোয়াইন জনসন ও জেসন স্ট্যাথামের বিপরীতে খল চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস-এর পরবর্তী ছবি হবস অ্যান্ড শ-তে দেখা যাবে এই অভিনেতাকে। ডেডপুল টু ছবির পরিচালক ডেভিড লিচ ছবিটি পরিচালনা করেছেন। ডোয়াইন জনসন তার চরিত্র লুক হবস চরিত্রেই দেখা দেবেন। জেসন স্ট্যাথাম থাকবেন অপরাধী ডেকার্ড শ হিসেবে। পান্ডুলিপি লিখেছেন ক্রিস মর্গান। এই সিরিজে ডোয়াইন জনসনের হবস চরিত্রটি আসার পরে বেশ দর্শকপ্রিয়তা পায়। ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইউনিভার্সেল চেষ্টা করছে চরিত্রটিকে ঘিরেই একটি কিস্তি তৈরির। সঙ্গে থাকবে জেসন স্ট্যাথামের চরিত্র ডেকার্ড শ।

ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ফ্রাঞ্চাইজির অষ্টম কিস্তিতে এই দুজনের অভিনয়ের রসায়ন বেশ পছন্দ করেছেন দর্শকেরা। তাই দুই চরিত্রকে ঘিরে একটি ছবি নির্মাণের চেষ্টা করে যাচ্ছিল প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। এবার সেই চেষ্টার বাস্তবায়ন হলো। দু’জনের বিরুদ্ধে ভিলেন হিসেবে দেখা দেবেন ইদরিস এলবা। ইউনিভার্সেল পিকচার্সের ব্যানারে এটি প্রযোজনা করছেন নিল এইচ মরিটজ। সঙ্গে থাকবে ডোয়াইন জনসনের সেভেন বাকস প্রোডাকশনস। আগের ছবিগুলোর সাফল্যের ধারাবাহিকতা বজায় রাখবে হবস অ্যান্ড শ- এ বিষয়ে সন্দেহের কোন অবকাশ নেই। ছবির ট্রেলার দেখে দর্শকদের তুমুল সাড়া আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে নির্মাতাদের। হলিউডের ডাকসাইটে পত্রিকাগুলোও তাদের রিভিউয়ে সার্বিকভাবে এগিয়ে রেখেছে ছবিটিকে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More