মৌলভীবাজারে নদী ভাঙ্গনের দুর্ভোগ আর হবে না পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

101

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল জাহিদ ফারুক বলেছেন,মৌলভীবাজার শহর রক্ষা করতে মনু নদীতে ১২৭মিটারের গাইড ওয়াল নির্মাণ করা হয়েছে। মনু নদী প্রকল্পে ১হাজার ২ কোটি টাকার বাজেট একনেকে পাঠানো হয়েছে। প্রকল্পটি অনুমোদন হলে বন্যার সময় আর নদীগর্ভে বাড়িঘর বিলিন হবে না। অতীতের সরকারের আমলে যে কষ্ট পেয়েছেন নদী ভাঙ্গনের কারণে এখন আর তা হবে না। গতকাল (১৯ জুলাই) শুক্রবার বিকেলে মৌলভীবাজার পৌর শহরের চাঁদনীঘাট এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবণের সামনে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে জেলা প্রশাসন ও মৌলভীবাজার পৌরসভার উদ্যোগে চাল বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ঘুরে বেড়াই। প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে বলেছেন তোমরা বন্যা কবলিত এলাকায় যাও এবং যা যা করা দরকার তাই করেন। কাউন্সিলর স্বাগত কিশোর দাশের পরিচালনায় চাল বিতরণে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহ জালাল, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক আশরাফুল আলম খান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহি প্রকৌশলী রনেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. কামাল হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, জেলা প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা বৃন্দ সহ জেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মৌলভীবাজার মনু নদীর তীর সংলগ্ন দূর্যোগ কবলিত এলাকা ও পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের ক্ষতিগ্রস্থ ৩৫০ পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। পানি সম্পদ মন্ত্রী মৌলভীবাজার মনু নদীর চাঁদনীঘাট এলাকার গাইড ওয়াল পরিদর্শন করেন। এর আগে মন্ত্রী কদমহাটা এলাকায় মনু নদীর বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন।