ঘটনা নিয়ে সীমান্তে ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী নিহতের অভিযোগ

138


জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের কিরনগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে দুলাল হোসেন (১৮) নামে বাংলাদেশী এক তরুন নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। দুলাল কিরনগঞ্জ ঝড়–টোলা গ্রামের (১নং ওয়ার্ড) শফিকুল ইসলামের ছেলে। স্থানীয়দের দাবী,গত রোববার(৭’জুলাই) দিবাগত রাতে ৭/৮জন সঙ্গীসহ ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের সময় গভীর রাতে ১৭৮নং সীমান্ত মেইন পিলারের নিকট দুলাল বিএসএফ’র সুখদেবপুর ক্যাম্প সদস্যদের গুলিতে নিহত হন। এসময় তার অন্য সহযোগিরা পালিয়ে আসেন। এদের মধ্যেও কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে স্থানীয়ভাবে শোনা গেছে। তবে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তারা গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।
এব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ ৫৯’বিজিবি ব্যাটালিয়ন (রহনপুর) অধিনায়ক লে.কর্ণেল মাহমুদুল হাসান সোমবার(৮’জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে জানান, ঘটনাটি নিয়ে কিরনগঞ্জ সীমান্তে দুপুরে বিএসএফ’র সাথে ব্যাটলিয়ন অধিনায়ক পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ২৪’বিএসএফ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক অনিল হটকার। বৈঠকে বিএসএফ সীমান্তে তাদের গুলিতে একজন নিহত হবার বিষয়টি স্বীকার করেছে। কিন্তু নিহত ব্যক্তি বাংলাদেশী না ভারতীয় তা নিশ্চিত করেনি। বিজিবিও নিহতের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারেনি। মঙ্গলবার(৯’জুলাই) সকালে ওই সীমান্তে পূনরায় পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এরপর এই ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান লে.কর্ণেল মাহমুদুল হাসান।
এদিকে সোমবার (৮’জুলাই) বিকেল ৪টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দুলালের মরদেহ ভারতেই ছিল। নিহত দুলাল ও তার সহযোগিরা কি কারণে ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এই সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় গবাদিপশু আসেনা। হতাহতরা চোরাকারবারী চক্রের সদস্য।
বিনোদপুর ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক বিএসএফ’র গুলিতে দুলাল নিহত হবার ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি সকাল ৭টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছার কথা জানান। ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, বিজিবি’র উর্ধতণ কর্মকর্তারা সকাল থেকেই ঘটনাস্থলে রয়েছেন। তারা বিএসএফ’র সাথে বারবার যোগাযোগ করেছেন।
স্থানীয়রা জানান, তারা রাত আড়াইটার দিকে সীমান্তে গুলিবর্ষণের শব্দ পেয়েছেন। পরে দুলালের মরদেহ সোমবার ভোরে আলো ফোটার পর সীমান্তের ২০/২৫ গজ ভারতের অভ্যন্তরে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এসময় বিজিবি কিরনগঞ্জ বিওপি সদস্যরা সীমান্তের ঘটনাস্থলে পৌঁছেন। পরে সকালেই দুলালের মরদেহ বিএসএফ নিজেদের হেফাজতে নিয়ে চলে যায়।   ###