গোলরক্ষক মান বাঁচালেন আর্জেন্টিনার

65

ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা নিয়েই আজ মাঠে নেমেছিল আর্জেন্টিনা। তবে সমর্থকদের খুশি করতে পারেননি তারা। কোনোমতে ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় লিওনেল মেসিদের।

কোপা আমেরিকার প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার কাছে লজ্জাজনক হারের পর একাদশে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার ভোরে মাঠে নামে আর্জেন্টিনা।

মিনেইরোতে প্রতিপক্ষ প্যারাগুয়ের বিপক্ষে আগের ম্যাচের সেই বাজে পারফরম্যান্সের পুনরাবৃত্তি করছিলেন স্কলানির শিষ্যরা। একাদশ আর কৌশলে পরিবর্তন এনেও বাজে পারফরম্যান্সের গণ্ডি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেননি আলবিসেলেস্তেরা।

কলাম্বিয়ার বিপক্ষে খেলা ম্যাচের মতোই আজ মেসিদের পায়ে অগোছালো ফুটবল খেলা চলতে থাকে মিনেইরোতে।

সুযোগটা কাজে লাগায় প্যারাগুয়ে। ফলে প্যারাগুয়ের সঙ্গে ড্র করে সন্তুষ্ট থাকতে হলো তাদের। ম্যাচের ৩৭ মিনিটের মাথায় বাঁ পাশ থেকে মিগুয়েল আলমিরনের ক্রসে সোজা ফ্রাঙ্কোকে পরাস্ত করেন রিচার্ড সানচেজ। প্রথমার্ধে ১-০ তে লিড নেয় প্যারাগুয়ে। প্রথমার্ধের বাকিটা সময় গোল পরিশোধ করতে পারেনি আর্জেন্টিনা।

দ্বিতীয়ার্ধে সার্জিও আগুয়েরোকে মাঠে নামান স্কলানি। এ সময় দুর্দান্ত হয়ে উঠতে দেখা যায় অধিনায়ক মেসিকে। ৫৭ মিনিটে তার ক্ষুরধার এক দুর্দান্ত শট ঠেকিয়ে দেন প্যারাগুয়ের গোলরক্ষক। তবে এর আগে বল ইভান পিরিসের হাতে লাগায় রেফারি ভিএআরের সাহায্য নিয়ে পেনাল্টির বাঁশি বাজান।

স্পট কিক থেকে গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরান মেসি।

ম্যাচের শেষের দিকে ভাগ্য খুলে প্যারাগুয়ের। আর্জেন্টিনার ডি-বক্সে রেফারির বাঁশি প্যারাগুয়ের পক্ষে যায়। তবে সেই সৌভাগ্যকে দুর্ভাগ্যে পরিণত করেন ডেরলিস গঞ্জালেস।

স্পট কিক থেকে নেয়া তার শটটি আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক ঠেকিয়ে দিলে সে যাত্রায় বেঁচে যান স্কলানির শিষ্যরা। ১-১ গোলেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় এদোয়ার্দো বেরিজ্জোর শিষ্যদের। গোলরক্ষকের কল্যাণে আবারও একটি লজ্জাজনক হার থেকে বাঁচে আর্জেন্টিনা।

তবে হারের লজ্জা এড়ালেও এবারের কোপার শেষ আটে যাওয়া বেশ কঠিন হয়ে পড়ল মেসিদের জন্য।

দুই ম্যাচ খেলে এখন পর্যন্ত তাদের পয়েন্ট ১। শেষ ম্যাচে কাতারকে হারাতেই হবে আর্জেন্টিনাকে। শুধু তাই নয় কলম্বিয়া-প্যারাগুয়ের ম্যাচের ফলের দিকেও চেয়ে থাকতে হবে স্কলানির শিষ্যদের।

মন্তব্য
Loading...