বাংলাদেশে মৃত্যুদণ্ড বিলোপের আশা ইইউর

1,095

সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও মৃত্যুদণ্ড ব্যবস্থা বিলোপ হবে বলে আশা করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। আজ ১০ অক্টোবর মৃত্যুদণ্ডবিরোধী ইউরোপীয় ও বৈশ্বিক দিবসকে সামনে রেখে গতকাল সোমবার গণমাধ্যম সম্পাদকদের উদ্দেশ্যে লেখা চিঠিতে ঢাকায় ইইউ মিশন প্রধানরা এ আশার কথা জানান।

চিঠির লেখকরা হলেন বাংলাদেশে ইইউর চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স (সিডিএ) মারিয়ো রনকোনি, ইতালির রাষ্ট্রদূত মারিয়ো পালমা, জার্মানির রাষ্ট্রদূত থমাস হেনরিক প্রিঞ্জ, নেদারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত লিয়োনি কুয়েলেনায়েরে, ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক, ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত মাইকেল হেমনিতি উইন্থার, স্পেনের রাষ্ট্রদূত আলভারো ডি সালাস জিমেনেজ ডি আজকারাতে, সুইডেনের রাষ্ট্রদূত র্শালটা শ্লিটার ও ফ্রান্সের সিডিএ জ্যাঁ-পিয়েরে পনসেট।

চিঠিতে তাঁরা লিখেছেন, মৃত্যুদণ্ডবিরোধী দিবসের প্রাক্কালে ইইউ মৃত্যুদণ্ডের বিরূদ্ধে নীতি পূণর্ব্যক্ত করছে। ইইউ মনে করে, মৃত্যুদণ্ড অমানবিক ও অপ্রয়োজনীয়। কোনো বিচার ব্যবস্থাই নির্ভুল নয়। বিচার ব্যবস্থার যে কোনো ভুল নিরাপরাধ প্রাণের মর্মান্তিক ক্ষতির কারণ হতে পারে। সব ব্যক্তির মানবাধিকার রক্ষার সর্বোচ্চ দায়িত্ব রাষ্ট্রের। তাই কোনো ব্যক্তির বেঁচে থাকার অধিকার রাষ্ট্রের কেড়ে নেওয়া উচিত নয়।

ইইউ আশা করে, জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হিসেবে মৃত্যুদণ্ডবিরোধী সব সনদ কার্যকরে বাংলাদেশ প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেবে এবং মৌলিক মানবাধিকার ও মানুষের সম্মান জোরদারে ভূমিকা রাখবে।