সিলেটে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন

218
gb

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

১৪তম সিলেট আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুক্রবার থেকে নগরীর শাহী ঈদগাহে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে। বিকেল তিনটায় ফিতা কেটে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ এমপি।

দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে মাসব্যাপী এ মেলার সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে মনিপুরী তাঁতী শিল্প ও জামদানী বেনারশী কল্যাণ ফাউন্ডেশন।

সিলেট চেম্বার সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদের সভাপতিত্বে মেলার উদ্বোধনের বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ বলেন, ‘বিমানবন্দর থেকে এখানে আসার সময় সিলেটর উন্নয়ন দেখে আমি অভিভূত হয়েছি। সিলেটের এই উন্নয়ন হয়েছে আমাদের মুহিত ভাইয়ের (অর্থমন্ত্রী) অবদানে। বিএনপির সরকার ক্ষমতায় আসার পর আমাদের সকল উন্নয়ন প্রকল্প বন্ধ করে দিয়েছিল। তাই আমরা যখন আবার ক্ষমতায় আমি তখন সব কিছু নতুন করে করতে হয়েছে। এই দুই পর্বে ক্ষমতায় এসে বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশর উন্নয়ন দেখিয়েছি।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘দেশের উন্নয়ন চাইলে আবার শেখ হাসিনার সরকারকে নির্বাচিত করতে হবে। যখন কোন সরকার ধারাবাহিকভাবে ক্ষমতায় থাকে তখন ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়। দেশের মানুষের কল্যাণ হয়। বর্তমান সরকারের আমলে সারাদেশে উন্নয়ন হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সামনে নির্বাচন। আপনারা আমাদের কর্মকান্ড দেখে বিবেচনা করবেন কাকে ভোট দেবেন। আগামী ১০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশকে দারিদ্রমুক্ত করা হবে। আমরা আশাবাদি আপনারা শেখ হাসিনাকেই বেছে নিবেন রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য। কারন তিনি জনগনের সরকার জনকল্যানের সরকার।’

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ সিলেট চেম্বার অব কমার্স-কে বাণিজ্যমেলা আয়োজনের সুযোগ করে দেওয়ায় অর্থমন্ত্রী ও বাণিজ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, সারা বিশ্বে সুনাম অর্জনকারী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সহযোগিতায় সাত বছর পর সিলেট চেম্বার বাণিজ্যমেলা আয়োজন করতে পেরেছে। তিনি বলেন, আমরা সরকারের সাথে সমন্বয় রেখে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। তিনি সিলেটকে অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ ও পর্যটন খাতকে আকর্ষণীয় করে তুলতে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি সিলেটের আবাসিক, বাণিজ্যিক ও শিল্প খাতে গ্যাস সংযোগ চালু, রেল সেবার মান উন্নয়ন ও সিলেট-ঢাকা, সিলেট-চট্টগ্রাম রুটে বিলাস বহুল এসি কম্পার্টমেন্ট সংযোজন, পর্যটন এলাকাগুলো অবকাঠামোগত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, বিসিক শিল্প নগরী সম্প্রসারণ, গোয়াইনঘাটে প্রস্তাবিত স্পেশাল ইকোনমিক জোন দ্রুত বাস্তবায়ন এবং সিলেট চেম্বারের আধুনিক ভবন নির্মাণে সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি ‘কিপ সিলেট ক্লিন’ কর্মসূচী অব্যাহত রাখার আহবান জানান।

তিনি সিলেট আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা সার্বিক সহযোগিতার জন্য স্থানীয় প্রশাসন, বাণিজ্যমেলা সাব কমিটি, মনিপুরী তাঁতী শিল্প ও জামদানী বেনারশী কল্যাণ ফাউন্ডেশন সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

সিলেট চেম্বারের পরিচালক মোঃ আব্দুর রহমান জামিলের উপস্থাপনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাণিজ্যমেলা সাব কমিটির আহবায়ক মুশফিক জায়গীরদার, এসএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, বিভাগীয় স্পেশাল পিপি এডভোকেট শাহ্ মোশাহিদ আলী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আব্দুল মোমেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট রেঞ্জ’র ডিআইজি মোঃ কামরুল আহসান বিপিএম, সিলেট সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ, জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, র‌্যাব-৯ এর অধিনায়ক লেঃ কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহ সভাপতি মোঃ এমদাদ হোসেন, পরিচালক জিয়াউল হক, পিন্টু চক্রবর্তী, মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), এহতেশামুল হক চৌধুরী, মুকির হোসেন চৌধুরী, আব্দুর রহমান, চন্দন সাহা, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, হুমায়ুন আহমেদ, আলহাজ্ব মোঃ আতিক হোসেন, মুজিবুর রহমান মিন্টু, সিলেট চেম্বারের প্রাক্তন নেতৃবৃন্দ, বাণিজ্যমেলা সাব কমিটির সদস্যবৃন্দ, সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ, আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ, প্রেস ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখবেন বাণিজ্য মেলা সাব কমিটির আহ্বায়ক মুশফিক জায়গীরদার ও সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সহ সভাপতি মো. এমদাদ হোসেন।