জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণজোয়ার দেখে সরকারের অসংযত আচরণ বেড়ে চলছে …………….. আবদুল মালেক রতন

182
gb

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি সাধারন সম্পাদক জনাব আবদুল মালেক রতন বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণজোয়ার দেখে সরকারের অসংযত আচরণ বেড়ে চলছে। সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভার অনুমতি দিয়েও তা বাতিল করা এবং এক দিন পর অনুমতি দেয়া হলেও সভার আগের দিন রাতে ও জনসভার পরে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চট্টগ্রামের ২৭ অক্টোবরের জনসভার অনুমতি নিয়ে এখনও টালবাহানা করছে। এ দিয়ে ঐক্যফ্রন্টের অগ্রযাত্রাকে রোধ করা যাবেনা। সরকার একবার জোটের আবির্ভাবকে অভিনন্দন জানাচ্ছে, কখনও সন্ত্রাসী-ষড়যন্ত্রকারী বলছে, কখনও সিকি আধুলি বলছে আবার বিপুল জন সমারোহের ভয়ে জনসভার অনুমতি দিতে টাল-বাহানা করছে। দেশের জনগন বোকা নয়। তারা সরকারের জন বিচ্ছিন্নতা ভালো ভাবেই বুঝতে পারছে। জনাব মালেক রতন নির্বাচনের আগ মুহুর্তে বর্তমানে অন্ততঃ গণতান্ত্রিক আচরণ করার আহবান জানান। আজ বিকেল ৪ টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জেএসডি’র ৪৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্ধসঢ়;যাপন কমিটির সভায় জনাব মালেক রতন এসকল কথা বলেন। ৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্ধসঢ়;যাপন কমিটির আহবায়ক মিসেস তানিয়া রব এর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব, দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় বক্তব্য রাখেন জেএসডি সিনিয়র সহ- সভাপতি এম এ গোফরান, সহসভাপতি এ্যাড. কে এম জাবির, সুলতান আহমেদ বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল উদ্দিন পাটোয়ারী, মোশারফ হোসেন, আবদুর রাজ্জাক রাজা, এস এম রানা চৌধুরী, এ্যাড. মোঃ গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, আবদুল্লাহ আল তারেক, এ্যাড. মকবুল হোসেন, মহানগর নেতা নুরুল জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি ষ্ট জেএসডি আবছার, হাজী আখতার হোসেন ভূঁইয়া, গাজী নজরুল ইসলাম, ছাত্র নেতা তৌফিক উজ জামান পীরাচা প্রমুখ। সভায় বক্তাগন আগামী ৩১ শে অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিতব্য আলোচনা সভাকে সফল করে তোলার জন্য দলের সর্বস্তরের নেতা, সংগঠক, কর্মী, শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি আহবান জানান।