আঙুল উঁচিয়ে বিবাদের ছবি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে ফলাও:সেই ঘটনায় একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পান নুরুল

734
gb

নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ। শেষ ওভারে মাহমুদ উল্লাহর ছক্কা জিতিয়ে দেয় বাংলাদেশকে। কিন্তু ওই ওভারেই এমন কিছু ঘটনা ঘটে, যা সারা বিশ্বে আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। নো বল না দেওয়াকে কেন্দ্র করে মাঠের বাইরে উত্তেজিত হয়ে পড়েন সাকিব। আর মাঠে লঙ্কান অধিনায়ক থিসারা পেরেরার সঙ্গে বিবাদে জড়ান টাইগার একাদশের বাইরে থাকা নুরুল হাসান সোহান।

ক্যারিয়ারের শেষ প্রান্তে থাকা পেরেরার সঙ্গে সোহানের আঙুল উঁচিয়ে বিবাদের ছবি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে ফলাও করে ছাপানো হয়। অনেকে নিন্দাও জানান সোহানের এই আচরণের। সেই ঘটনায় একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পান নুরুল। সঙ্গে দিতে হয় ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ জরিমানা। কিন্তু দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে পানি নিয়ে ঢোকার পর এমন কী হলো যার জন্য প্রায় হাতাহাতির উপক্রম হয়ে পড়েছিল? আজ সোমবার দেশে ফেরার পর এই তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জানালেন ঘটনার আদ্যোপান্ত।

সোহানের ভাষায়, ‘মাঠে ঢুকে রিয়াদ ভাইয়ের সাথে কথা বলছিলাম। লেগ আম্পায়ারকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, প্রথম বলটা বাউন্স দেওয়া হয়েছিল কিনা। তখন থিসারা এসে বলে, তুমি কথা বলার কে? তুমি যাও। তোমার কথা বলতে হবে না। আমি বলেছিলাম, তোমার সাথে আমি আমি কথা বলছি না। তখন ও আমাকে গালি দেয়।’

তবে সোহান বুঝতে পেরেছেন, আন্তর্জাতিক ম্যাচে এভাবে উত্তেজিত হয়ে পড়াটা তার উচিত হয়নি। নিজেকে নিয়ন্ত্রণে রাখার প্রয়োজন ছিল। কিন্তু ম্যাচের শেষ ওভারের চরম উত্তেজনায় মাথা ঠিক রাখতে পারেননি তিনি। বললেন, ‘আমার হয়ত তখন চুপ থাকা উচিত ছিল। আমি তাকে বলেছি, এটা তোমার দেখার ব্যাপার না। হিট অব দ্য মোমেন্টে আমিও হয়ত বা কথার জবাব দিয়েছি। এটাই ঘটনা।’